রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৭:৫৬ অপরাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
প্যারিস জলবায়ু চুক্তিতে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করতে সম্মত বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র যুক্তরাষ্ট্রে জনসন এন্ড জনসনের কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন অনুমোদন কোভিড মোকাবিলায় বাংলাদেশের প্রচেষ্টার ভূয়সী প্রশংসা করলেন জাতিসংঘ মহাসচিব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামীকাল শনিবার প্রেস কনফারেন্সে বক্তব্য রাখবেন সৌদি সাংবাদিক খাসোগি হত্যার বিষয়ে গোয়েন্দা প্রতিবেদন দেখেছেন বাইডেন ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনয়নে তৃণমূলের রেজুলেশন কেন্দ্রে পাঠানোর নির্দেশ কঙ্গোতে অতর্কিত হামলায় নিহত রাষ্ট্রদূতের লাশ ইতালি পৌঁছেছে প্রখ্যাত সাংবাদিক সৈয়দ আবুল মকসুদ আর নেই ইসলামাবাদে বাংলাদেশ হাইকমিশনে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত করোনায় মারা গেছে ৫ লাখ মানুষ

করোনা সংক্রমণ থামাতে অষ্ট্রেলিয়ার সিডনির অংশ বিশেষে লকডাউন

  • আপডেট সময় রবিবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০২০

॥আন্তর্জাতিক ডেস্ক॥ করোনা সংক্রমণ দ্রুত বেড়ে যাওয়ায় অষ্ট্রেলিয়ার জনবসতিপূর্ণ নগরী সিডনির বিভিন্ন এলাকায় শনিবার শুরু হতে যাচ্ছে নতুন করে লকডাউন ।
ক্রিসমাসের সময়ে করোনা সংক্রমণ দ্রুত বেড়ে যাওয়া থামাতে এ উদ্যোগ যথেষ্ট বলে মনে করছেন কর্মকর্তারা।
নগরীর উত্তরাঞ্চলে সৈকত এলাকার নর্দান বিচে গুচ্ছ সংক্রমণ সংখ্যা ৩৮ হওয়ায় বাসিন্দাদের  শনিবার বিকেল থেকে বুধবার মধ্যরাত পর্যন্ত জরুরী প্রয়োজন ছাড়া বাইরে না গিয়ে বাড়িতে অবস্থান করতে বলা হয়েছে।
নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যের প্রধানমন্ত্রী গ্লেডিস বেরেজিকলিয়ান বলেছেন, এ পদক্ষেপের কারণে ভাইরাসের তীব্র সংক্রমণ ঠেকাতে আমরা যথেষ্ট সময় পাবো। এর ফলে ক্রিসমাস ও নতুন বছরের এ সময়ে আমরা শিথিল থাকতে পারবো।
উল্লেখ্য নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যের রাজধানী সিডনি। শহরটির কয়েকটি এলাকায় শনিবার বিকেল ৫টা থেকে হাজার হাজার লোককে ঘরে অবস্থান করতে হবে। বিচ, পাব ও হোটেলসমূহ বন্ধ থাকবে।
এদিকে সিডনিতে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক নয়। কিন্তু নর্দান বিচের বাসিন্দাদের সারাক্ষণ মাস্ক পরতে বলা হয়েছে। এমনকি ঘরে থাকলেও।
অষ্ট্রেলিয়ায় এ পর্যন্ত ২৮ হাজারেরও বেশি কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে। মারা গেছে  ৯০৮ জন। দেশটির মোট জনসংখ্যা প্রায় আড়াই কোটি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!