মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ১০:৫৯ অপরাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
বিশ্বব্যাপী ওমিক্রন সংক্রমণ বৃদ্ধিতে আইসোলেশন মেয়াদ অর্ধেক করার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ওমিক্রন ভেরিয়েন্ট ডেল্টা ও বিটার তুলনায় তিন গুণের বেশী পুনঃ সংক্রমন ঘটাতে পারে : গবেষণা প্রতিবেদন জাতিসংঘ ভবনের বাইরে এক বন্দুকধারী গ্রেফতার শান্তি চুক্তির পঞ্চম বার্ষিকী উপলক্ষে কলম্বিয়া সফর জাতিসংঘ মহাসচিব সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তিন বাহিনীর প্রধানগণের সাক্ষাৎ করোনা ভাইরাসের সংক্রমন বেড়ে যাওয়ায় অস্ট্রিয়ায় লকডাউন করোনা সংক্রমণ বাড়ায় ইউরোপের বিভিন্ন দেশে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ ভারতে নতুন করে ১০ হাজার ৩০২ জন করোনায় আক্রান্ত নভেম্বর মাসজুড়ে করাঞ্চলে কর মেলার সেবা পাবেন করদাতারা ঔপনিবেশিক আমলের ফৌজদারী কার্যবিধি যুগোপযোগী হচ্ছে

রাজবাড়ী জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সেক্রেটারী আনিস ঢাকার কিডনী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৭ জুলাই, ২০২০

॥সুশীল দাস॥ আওয়ামী লীগের অন্যতম সহযোগী সংগঠন স্বেচ্ছাসেবক লীগের রাজবাড়ী জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক খোন্দকার আনিসুর রহমান আনিস(৪৮) কিডনী রোগে আক্রান্ত হয়ে বর্তমানে ঢাকার শ্যামলীতে অবস্থিত কিডনী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী তার চিকিৎসার ব্যয় বহনসহ সার্বিক সহযোগিতা করে যাচ্ছেন।

এ ব্যাপারে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আনিসুর রহমান আনিস বলেন, প্রায় দুই সপ্তাহ আগে আমার কিডনীর জটিলতা ধরা পড়ে। প্রস্রাবের সাথে রক্ত বের হওয়া, হজম না হওয়া, ঘুমের সমস্যাসহ বিভিন্ন সমস্যা হলে আমি প্রথমে রাজবাড়ী হাসপাতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাঃ মোঃ নিয়াজ আহমদের কাছে চিকিৎসা নেন। পরে গত ২৮শে জুন ঢাকার শ্যামলীর কিডনী হাসপাতালে ভর্তি হই। তারপর থেকে হাসপাতালের ২নং ওয়ার্ডের ৫নং বেডে চিকিৎসাধীন রয়েছি। তবে আজ(সোমবার) হাসপাতাল থেকে আমাকে রিলিজ করে দিতে চাচ্ছিল। এখান থেকে বলেছিল দু’এক মাস বাড়ীতে থেকে চিকিৎসা নিয়ে আবার যোগাযোগ করতে। কিন্তু বিষয়টি কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতৃবৃন্দকে জানানোর তাদের হস্তক্ষেপে আর রিলিজ করেনি।

আনিসুর রহমান আনিস আরও বলেন, রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী তার চিকিৎসার ব্যয় বহনসহ সার্বিক সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। নিয়মিত খোঁজ-খবর রাখছেন।

এছাড়াও মিজানপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমিন উদ্দিন আহম্মেদ টুকুও সহায়তা করেছেন। এর পাশাপাশি ঢাকায় অবস্থানকারী যারা একসময় আমার সাথে ছাত্রলীগ করতো তারাও প্রতিদিন সশরীরে এসে খোঁজ-খবর নিচ্ছেন। তবে আমার কিডনীর যা পরিস্থিতি তাতে ডাক্তাররা প্রতি সপ্তাহে ২বার করে ডায়ালাইসিস করার কথা বলেছেন। এতে প্রতি সপ্তাহে ৬হাজার টাকার মতো ব্যয় হবে। কিন্তু এই চিকিৎসার ব্যয় বহন করার ক্ষমতা আমার নেই। এখন ইরাদত ভাই এবং দলীয় শুভানুধ্যায়ীরাই আমার ভরসা। সুস্থ্যতার জন্য তিনি সকলের কাছে দোয়া কামনা করেন।

রাজবাড়ী জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোঃ হাফিজুর রহমান হাফিজ বলেন, আমরা সাংগঠনিকভাবে এবং আমি ব্যক্তিগতভাবে সবসময় আনিসের খোঁজ-খবর রাখছি। মূল দল ও সকল অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনকে বিষয়টি অবগত করেছি। যাদের সামর্থ্য আছে তারা আর্থিক সহযোগিতাও করছেন এবং আগামীতেও করবেন বলে আমি আশাবাদী।

উল্লেখ্য, আনিসুর রহমান আনিস ২০১১ সাল থেকে রাজবাড়ী জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তার আগে তিনি জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। স্বেচ্ছাসেবক লীগের আগে ১৯৯২-৯৩ সালে তিনি রাজবাড়ী সরকারী কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি এবং ১৯৯৭-৯৯ সালে ছাত্রলীগের জাতীয় পরিষদ(কেন্দ্রীয় কমিটি) সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তার বাড়ী রাজবাড়ী সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের বাগমারা গ্রামে। পিতার নাম মরহুম খোন্দকার আফসার উদ্দিন। যোগাযোগের জন্য ০১৭২১০৯১০৪৯ (আনিস)।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!