বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ০৯:৩১ অপরাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
পার্বত্য শান্তি চুক্তির ২৩তম বর্ষপূর্তি আজ ৪৯তম স্বাধীনতা দিবসকে ঘিরে অপরূপ সাজে সজ্জিত আমিরাত ট্রাভেল এজেন্ট অব বাংলাদেশ ইউএই পক্ষে দুবাই কনস্যুলেটে স্মারক লিপি মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত বিজয়ের মাস শুরু যমুনা নদীর উপরে বঙ্গবন্ধু রেলওয়ে সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজস্ব বলয় তৈরি করতে মাই ম্যান দিয়ে কমিটি গঠন করা যাবে না : ওবায়দুল কাদের তথ্য সচিব কামরুন নাহারের বিদায়ী সভা অনুষ্ঠিত আরডিএ বিতর্ক কর্মশালা-২০২০॥শিক্ষার্থী রেজিস্ট্রেশন চলছে বাইডেনের বিজয় নিশ্চিত হলে হোয়াইট হাউস ছাড়বেন ট্রাম্প শীঘ্রই ভুয়া অনলাইনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা : তথ্যমন্ত্রী

রাজবাড়ী জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সেক্রেটারী আনিস ঢাকার কিডনী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৭ জুলাই, ২০২০

॥সুশীল দাস॥ আওয়ামী লীগের অন্যতম সহযোগী সংগঠন স্বেচ্ছাসেবক লীগের রাজবাড়ী জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক খোন্দকার আনিসুর রহমান আনিস(৪৮) কিডনী রোগে আক্রান্ত হয়ে বর্তমানে ঢাকার শ্যামলীতে অবস্থিত কিডনী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী তার চিকিৎসার ব্যয় বহনসহ সার্বিক সহযোগিতা করে যাচ্ছেন।

এ ব্যাপারে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আনিসুর রহমান আনিস বলেন, প্রায় দুই সপ্তাহ আগে আমার কিডনীর জটিলতা ধরা পড়ে। প্রস্রাবের সাথে রক্ত বের হওয়া, হজম না হওয়া, ঘুমের সমস্যাসহ বিভিন্ন সমস্যা হলে আমি প্রথমে রাজবাড়ী হাসপাতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাঃ মোঃ নিয়াজ আহমদের কাছে চিকিৎসা নেন। পরে গত ২৮শে জুন ঢাকার শ্যামলীর কিডনী হাসপাতালে ভর্তি হই। তারপর থেকে হাসপাতালের ২নং ওয়ার্ডের ৫নং বেডে চিকিৎসাধীন রয়েছি। তবে আজ(সোমবার) হাসপাতাল থেকে আমাকে রিলিজ করে দিতে চাচ্ছিল। এখান থেকে বলেছিল দু’এক মাস বাড়ীতে থেকে চিকিৎসা নিয়ে আবার যোগাযোগ করতে। কিন্তু বিষয়টি কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতৃবৃন্দকে জানানোর তাদের হস্তক্ষেপে আর রিলিজ করেনি।

আনিসুর রহমান আনিস আরও বলেন, রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী তার চিকিৎসার ব্যয় বহনসহ সার্বিক সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। নিয়মিত খোঁজ-খবর রাখছেন।

এছাড়াও মিজানপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমিন উদ্দিন আহম্মেদ টুকুও সহায়তা করেছেন। এর পাশাপাশি ঢাকায় অবস্থানকারী যারা একসময় আমার সাথে ছাত্রলীগ করতো তারাও প্রতিদিন সশরীরে এসে খোঁজ-খবর নিচ্ছেন। তবে আমার কিডনীর যা পরিস্থিতি তাতে ডাক্তাররা প্রতি সপ্তাহে ২বার করে ডায়ালাইসিস করার কথা বলেছেন। এতে প্রতি সপ্তাহে ৬হাজার টাকার মতো ব্যয় হবে। কিন্তু এই চিকিৎসার ব্যয় বহন করার ক্ষমতা আমার নেই। এখন ইরাদত ভাই এবং দলীয় শুভানুধ্যায়ীরাই আমার ভরসা। সুস্থ্যতার জন্য তিনি সকলের কাছে দোয়া কামনা করেন।

রাজবাড়ী জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোঃ হাফিজুর রহমান হাফিজ বলেন, আমরা সাংগঠনিকভাবে এবং আমি ব্যক্তিগতভাবে সবসময় আনিসের খোঁজ-খবর রাখছি। মূল দল ও সকল অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনকে বিষয়টি অবগত করেছি। যাদের সামর্থ্য আছে তারা আর্থিক সহযোগিতাও করছেন এবং আগামীতেও করবেন বলে আমি আশাবাদী।

উল্লেখ্য, আনিসুর রহমান আনিস ২০১১ সাল থেকে রাজবাড়ী জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তার আগে তিনি জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। স্বেচ্ছাসেবক লীগের আগে ১৯৯২-৯৩ সালে তিনি রাজবাড়ী সরকারী কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি এবং ১৯৯৭-৯৯ সালে ছাত্রলীগের জাতীয় পরিষদ(কেন্দ্রীয় কমিটি) সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তার বাড়ী রাজবাড়ী সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের বাগমারা গ্রামে। পিতার নাম মরহুম খোন্দকার আফসার উদ্দিন। যোগাযোগের জন্য ০১৭২১০৯১০৪৯ (আনিস)।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!