বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৬:৩১ পূর্বাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
বিশ্বব্যাপী ওমিক্রন সংক্রমণ বৃদ্ধিতে আইসোলেশন মেয়াদ অর্ধেক করার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ওমিক্রন ভেরিয়েন্ট ডেল্টা ও বিটার তুলনায় তিন গুণের বেশী পুনঃ সংক্রমন ঘটাতে পারে : গবেষণা প্রতিবেদন জাতিসংঘ ভবনের বাইরে এক বন্দুকধারী গ্রেফতার শান্তি চুক্তির পঞ্চম বার্ষিকী উপলক্ষে কলম্বিয়া সফর জাতিসংঘ মহাসচিব সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তিন বাহিনীর প্রধানগণের সাক্ষাৎ করোনা ভাইরাসের সংক্রমন বেড়ে যাওয়ায় অস্ট্রিয়ায় লকডাউন করোনা সংক্রমণ বাড়ায় ইউরোপের বিভিন্ন দেশে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ ভারতে নতুন করে ১০ হাজার ৩০২ জন করোনায় আক্রান্ত নভেম্বর মাসজুড়ে করাঞ্চলে কর মেলার সেবা পাবেন করদাতারা ঔপনিবেশিক আমলের ফৌজদারী কার্যবিধি যুগোপযোগী হচ্ছে

আ’লীগের বিজয় এশিয়া ও বিশ্ব সম্প্রদায়ের জন্য ইতিবাচক ফল আনতে সহায়ক হবে—বিশেষজ্ঞগণ

  • আপডেট সময় শনিবার, ১৯ জানুয়ারী, ২০১৯

॥আন্তর্জাতিক ডেস্ক॥ পররাষ্ট্র নীতি বিশেষজ্ঞ, শিক্ষাবিদ ও গবেষকরা বলেছেন, বাংলাদেশে সম্প্রতি অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটের বিজয় দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চল তথা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের জন্য ইতিবাচক ফল বয়ে আনতে সহায়ক হবে। খবর বাসস।
পররাষ্ট্র নীতি বিশেষজ্ঞ ও সাবেক কূটনীতিক পিনাক রঞ্জন চক্রবর্তী বলেন, ‘বেশকিছু ইতিবাচক বিষয় কাজ করছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শাসনামলে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়ন অসামান্য এটি বর্তমান বিশ্বে একটি দৃষ্টান্ত।’
গত ৩০শে ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত ‘বাংলাদেশে একাদশ সংসদীয় নির্বাচন’ শীর্ষক এক গোলটেবিল আলোচনায় সভাপতি পিনাক চক্রবর্তী বলেন, নির্বাচনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ বিপুল বিজয় অর্জন করেছে। কেননা, হাসিনা ও তাঁর দল বাংলাদেশে আওয়ামী লীগের সমর্থনে একটি জোয়ার এসেছে।
গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব ওয়ার্ল্ড অ্যাফেয়ার্স গত ১৬ই জানুয়ারী ভারতের নয়াদিল্লীর সাপ্রু হাউজে এ আলোচনার আয়োজন করে।
অবজারভার রিসার্চ ফাউন্ডেশন (ওআরএফ)-এর ফেলো পিনাক চক্রবর্তী শেখ হাসিনার অর্থনৈতিক দক্ষতার প্রশংসা করেন যা বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তীর্ণ হতে সহায়ক হয়েছে।
তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ এখন আর তলাবিহীন ঝুড়ি নয় কিসিঞ্জার এখনো বেঁচে আছেন, বাংলাদেশের দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন দেখলে তিনি অবাক হবেন।’
বাংলাদেশে ভারতের সাবেক হাইকমিশনার পিনাক চক্রবর্তী বলেন, বাংলাদেশের বর্তমান ৭ প্লাস জিডিপি প্রবৃদ্ধি খুবই চিত্তাকর্ষক। এছাড়া, সামাজিক খাতের উন্নতিও অনেক বেশি মনোমুগ্ধকর।
তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয়- বাংলাদেশের একটি প্রজন্মগত পরিবর্তন হচ্ছে। তরুণরা চাকুরী ও উন্নত ভবিষ্যত চান। শেখ হাসিনা তাদের কাজ দিয়েছেন এবং তরুণরা এখন তাঁর ওপর আস্থা স্থাপন করেছেন।’
তিনি বলেন, আজকের তরুণ প্রজন্ম তাদের ১৯৭১ সালের যুদ্ধের ইতিহাস নিয়ে গর্ববোধ করে। এটি এখন একটি বড় ফ্যাক্টর হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে।
নির্বাচনে বিএনপির বিশাল পরাজয়ের প্রসঙ্গ টেনে পিনাক চক্রবর্তী বলেন, ‘বিএনপিকে অবশ্যই নিজেকে পুনর্গঠিত করতে হবে, নয়তো দলটি ইতিহাসের আস্তাকুঁড়ে নিক্ষিপ্ত হবে।’
তিনি বলেন, সহযোগিতার নতুন যুগের সূচনায় ভারতকে বাংলাদেশের ব্যাপারে দু’দেশের এবং এশীয় দেশগুলোর কল্যাণে আরো বেশি নজর দিতে হবে।
তিনি বলেন, ‘বিনিয়োগ, সংযোগ, নিরাপত্তা ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা বাড়ছে। এগুলো আরো দ্রুত বাড়া দরকার।’
প্যানেল আলোচকদের মধ্যে ছিলেন, জেএনইউ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সঞ্জয় ভরদ্বাজ, দ্য টেলিগ্রাফের সিনিয়র এডিটর জয়ন্ত রায় চৌধুরী, ইনস্টিটিউট অব ডিফেন্স স্টাডিজ এন্ড অ্যানালিসিস (আইডিএসএ)’র রিসার্চ ফেলো ড. এস পট্টনায়ক ও আইসিডব্লিএ’র ফেলো আশীষ শুক্লা।
আলোচকরা বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণে শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বের প্রশংসা করেন।
তারা বলেন, তাঁর (হাসিনার) বিজয় ভারত, দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চল ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের জন্য সুখবর।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!