বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০৯:২০ পূর্বাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
লম্পট তারিকুলের বিচার ও মা’কে ফিরে পেতে চায় প্রতিবন্ধী সন্তানরা॥ডিসির নিকট স্মারকলিপি প্রদান বালিয়াকান্দিতে বাজারে পেঁয়াজের দাম মনিটরিং করলেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব তুরস্কের বিরুদ্ধে এবার যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা পাংশায় দুইটি সংস্থা পরিদর্শন করলেন মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক পাংশার হাবাসপুরে বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস পালিত জেন্ডার ভিত্তিক সহিংসতা প্রতিরোধে পুরুষদের দায়িত্ব-ভূমিকা শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত কালুখালীতে জব্দকৃত আড়াই মণ ইলিশ মাছ এতিমখানায় বিতরণ দলীয় সমর্থক আবু ডাক্তারের মৃত্যুতে রাজবাড়ী জেলা আওয়ামীলীগের শোক রাজবাড়ীতে বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস ও স্যানিটেশন মাস উপলক্ষে র‌্যালী-হাত ধোয়া প্রদর্শনী ও আলোচনা সভা রাজবাড়ীতে বিশ্ব সাদা ছড়ি নিরাপত্তা দিবস পালিত

জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের উদ্বোধন উপলক্ষে রাজবাড়ীতে র‌্যালী ও আলোচনা সভা

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২০ জুলাই, ২০১৭

॥স্টাফ রিপোর্টার॥ জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের উদ্বোধন উপলক্ষে ‘মাছ চাষে গড়ব দেশ, বদলে দেব বাংলাদেশ’ শীর্ষক প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে গতকাল ১৯শে জুলাই সকালে রাজবাড়ী শহরে বর্নাঢ্য র‌্যালী, আলোচনা সভা ও জেলা প্রশাসকের বাসভবনের পুকুরে পোনা মাছ অবমুক্ত করা হয়।
রাজবাড়ী জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উদযাপন কমিটির আয়োজনে সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসক মোঃ শওকত আলীর নেতৃত্বে একটি বর্নাঢ্য র‌্যালী কালেক্টরেটের আম্রকানন চত্বর থেকে বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে রাজবাড়ী অফিসার্স ক্লাব প্রাঙ্গণে এসে শেষ হয়।
র‌্যালীতে প্রধান অতিথি হিসেবে রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলী, সম্মানিত বিশেষ অতিথি হিসেবে সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য কামরুন নাহার চৌধুরী লাভলী, বিশেষ অতিথি হিসেবে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফকীর আব্দুল জব্বার, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডঃ এম.এ খালেকসহ বিভিন্ন সরকারী দপ্তরের কর্মকর্তাগণ ও মৎস্য বিভাগের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাগণ, এনজিও প্রতিনিধিগণ, মৎস্যজীবী, মৎস্য খামারী ও মৎস্য ব্যবসায়ীগণসহ মৎস্য কার্যক্রমের সাথে জড়িত সংশ্লি¬ষ্টরা অংশগ্রহণ করেন। র‌্যালী শেষে রাজবাড়ী অফিসার্স ক্লাব মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা।
অলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ও জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের উদ্বোধন করেন রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলী।
জেলা প্রশাসক মোঃ শওকত আলীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় সম্মানিত বিশেষ অতিথি হিসেবে সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য কামরুন নাহার চৌধুরী লাভলী এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফকীর আব্দুল জব্বার ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়াম্যান এডঃ এম.এ খালেক বক্তব্য রাখেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা মৎস্য বীজ খামার কর্মকর্তা মোঃ লতিফুর রহমান খান। জেলা মৎস্য অফিসের সম্প্রসারণ কর্মকর্তা শামীমা আক্তারের সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন এনজিও প্রতিনিধি তপন কুমার পাল, মৎস্য চাষী মোঃ আলাউদ্দিন প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলী বলেন, আজকে সারা দেশে যে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ পালিত হচ্ছে আর এই মৎস্য ক্ষেত্রে আমাদের বর্তমানে যে সফলতা এসেছে সেটি সম্ভব হয়েছে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার দেশের প্রতি ভালবাসা, দূরদর্শী চিন্তা-ভাবনা ও মৎস্য ক্ষেত্রে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য। আমাদের সকলেরই মনে রাখা উচিত যে কোন কাজে সফল হতে গেলে বা লাভবান হতে গেলে লাগে একটি সুন্দর পরিকল্পনা ও নিজের কাজের প্রতি ভালবাসা। তবেই মৎস্য চাষসহ যে কোন ক্ষেত্রে সফলতা আসে। আজকে যারা রাজবাড়ী জেলায় মৎস্য চাষে সফল হয়েছেন তাদের প্রত্যেকেরই অতীতে একটি সুন্দর পরিকল্পনার কারণে তারা আজ সফল হয়েছেন। এই ক্ষেত্রে জেলা মৎস্য কর্মকর্তার ভালো অবদানের কারণে তিনি আজ সারা বাংলাদেশের মৎস্য কর্মকর্তাদের মধ্যে প্রথম হয়ে প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে পুরস্কার গ্রহণ করেছেন। আমরা সকলেই তার জন্য আজকে গর্বিত। আমি আশা করব মৎস্য বিভাগের সকল কর্মকর্তা ও জেলার সকল সফল মৎস্য চাষী তাদের অভিজ্ঞতাকে জেলার তরুণ সমাজের মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার মাধ্যমে জেলার তরুণদের মৎস্য চাষে সফল করে তুলবেন। তবেই সেদিন আর বেশী দূরে নয় যেদিন আমরা সারা বিশ্বের মধ্যে মৎস্য উৎপাদনে প্রথম স্থানে যাব বলে তিনি উল্লে¬খ করেন। এরপর প্রধান অতিথি জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন।
সম্মানিত বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য কামরুন নাহার চৌধুরী লাভলী বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর সুযোগ্য নেতৃত্বের কারণে আজকে দেশ মৎস্য উৎপাদনে সারা বিশ্বের মধ্যে চতুর্থ স্থানে রয়েছে। যার কারণে দেশের গরীব মানুষ মাছ খেতে পারছেন। এছাড়া বছরের কিছু বিশেষ সময়ে জেলেদের জাটকা(ছোট ইলিশ) শিকার বন্ধ থাকার কারণে ইলিশের ব্যাপক উৎপাদন সম্ভব হওয়ায় দেশের মানুষ আজকে ইলিশ খেতে পারছেন। আমাদের সকলকে মৎস্য চাষের মাধ্যমে দেশকে বিশ্বের বুকে রোল মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠা করার ব্যাপারে আরো উদ্যোগী হয়ে কাজ করতে হবে।
সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মোঃ শওকত আলী বলেন, আজকে রাজবাড়ী জেলার মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ মজিনুর রহমান সারা দেশের মধ্যে সেরা মৎস্য কর্মকর্তা নির্বাচিত হয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে যে পুরস্কার গ্রহণ করেছেন তার জন্য আমরা রাজবাড়ীবাসী সকলেই গর্বিত। আমাদের সকলের মনে রাখা উচিত বাংলাদেশ একটি কৃষি প্রধান দেশ হওয়ায় আমাদের প্রথমত কৃষি, তারপর মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ এই তিনটি বিভাগে বিশেষ গুরুত্ব সহকারে কাজ করতে হবে। আজকে বাংলাদেশ মৎস্য উৎপাদনে বিশ্বের বুকে চতুর্থ স্থানে আছে। আমি মনে করি আমরা সকলে যদি দেশাত্ববোধ নিয়ে কাজ করি তবে মৎস্যসহ সকল বিভাগে বিশ্বের মধ্যে নিজেদের স্থান ধরে রাখতে পারব। আমাদের সকলের উচিত বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রীর ভিশন ২০৩০ ও ২০৪১ এর লক্ষ্য নিয়ে সকল ক্ষেত্রে কাজ করা। তবেই আমরা নিজেদেরকে বিশ্বের বুকে একটি স্বাবলম্বী জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে পারব। তিনি সকলকে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ সফল করার আহবান জানান।
আলোচনা সভা শেষে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের সপ্তাহব্যাপী কার্যক্রমের অংশ হিসেবে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথিসহ অন্যান্য অতিথিগণ জেলা প্রশাসকের বাসভবন সংলগ্ন পুকুরে পোনা মাছ অবমুক্ত করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!