শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১, ১২:৫৯ অপরাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
চুক্তি অনুযায়ী বাংলাদেশ ভারতের কাছ থেকে শিগগিরই কোভিড ভ্যাকসিন পাবে মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী আগামীকাল শনিবার ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের কাছে ৬৬ হাজার ১৮৯ বাড়ি হস্তান্তর করবেন তথ্যমন্ত্রীর সাথে বাংলাদেশ সম্পাদক ফোরামের প্রতিনিধিদের মতবিনিময় যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের শপথ গ্রহণ কয়েক দশকের মধ্যে নতুন যুদ্ধ শুরু না করা প্রথম মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রে সর্বনিম্ন জনসমর্থন নিয়ে ক্ষমতা ছাড়ছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ করোনা ভাইরাসের টিকার বিষয়ে ইউরোপকে আশ্বস্ত করলো ফাইজার যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের শপথ নেয়ার আগেই হোয়াইট হাউস ছাড়বেন ট্রাম্প সমুদ্র সুরক্ষা ও নীল অর্থনীতি বিকাশে এডিবি, ইআইবি এক জোট

চলতি করবর্ষে অপ্রদর্শিত আয় থেকে ৯৬২ কোটি টাকার রাজস্ব আহরণ

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৫ জানুয়ারী, ২০২১

॥স্টাফ রিপোর্টার॥ চলতি ২০২০-২০২১ করবর্ষে ৭হাজার ৬৫০ জন ব্যক্তি শ্রেণীর করদাতা তাদের অপ্রদর্শিত সম্পদের ঘোষণা আয়কর রিটার্নে জমা দিয়েছেন। এই ঘোষণা দিয়ে তারা ৯৬২ কোটি ৬ লাখ টাকার কর প্রদান করেছেন।
করোনা ভাইরাস মহামারির প্রেক্ষিতে বেসরকারী খাতে অর্থনৈতিক কর্মকান্ড গতিশীল রাখা এবং বিনিয়োগ প্রবাহ বৃদ্ধি ও পুঁজিবাজারের উন্নয়নে চলতি অর্থবছরে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের সুযোগ দেয় জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।
এনবিআরের হিসাবমতে, শেয়ারে বিনিয়োগকৃত অর্থের ১০ শতাংশ হারে কর প্রদানের মাধ্যমে অপ্রদর্শিত আয় বৈধ করার সুযোগ নিয়েছেন ২০৫ জন করদাতা। তারা শেয়ার, মিউচুয়াল ফান্ড, বন্ড ও ঋণপত্রে বিনিয়োগের মাধ্যমে এই সুবিধা নিয়েছেন। শেয়ারবাজারে এই অর্থ অন্তত এক বছর বিনিয়োগ রাখার শর্তে সরকার এই সুবিধা প্রদান করে। অপ্রদর্শিত আয় পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে ২২ কোটি ৮৪ লাখ টাকার রাজস্ব পেয়েছে এনবিআর।
এদিকে জমি, ভবন ও ফ্ল্যাটের প্রতি বর্গমিটারের জন্য নির্দিষ্ট পরিমাণ কর পরিশোধ ও আয়কর রিটার্নে অপ্রদর্শিত আয় যেমন নগদ অর্থ, ব্যাংক আমানত, সঞ্চয়পত্র, বন্ড বা অন্য কোনো যেকোনো সম্পদের ওপর ১০ শতাংশ কর প্রদানের মাধ্যমে বৈধকরণ বিধানের সুযোগ নিয়েছেন ৭হাজার ৪৪৫ জন। তারা ৯৩৯ কোটি ৭৬ লাখ টাকা আয়কর পরিশোধ করেছেন।
এনবিআরের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বলেন, করোনা মহামারির কারণে দেশে যেন অর্থনৈতিক মন্দা তৈরি না হয়, সেজন্য আয়কর দেওয়ার মাধ্যমে অপ্রদর্শিত আয় বৈধ করার সুযোগ দেয়া হয়। এতে অর্থনীতির মূল ধারায় বড় অংকের অর্থ প্রবাহ যেমন এসেছে, তেমনি রাজস্ব আয়ও বেড়েছে।
তিনি জানান, অপ্রদর্শিত সম্পত্তি ঘোষণার মাধ্যমে এবার অর্থনীতির মূল ধারায় ১০ হাজার ২২০ কোটি টাকা প্রবেশ করেছে। এতে অর্থনীতির গতি আরও সঞ্চারণের পাশাপাশি বিনিয়োগ ও কর্মসংস্থানে ইতিবাচক প্রভাব পড়বে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!