রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৫৬ অপরাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত বরেণ্য আইনজীবী ব্যারিস্টার রফিক-উল হক যুক্তরাষ্ট্রে অস্ট্রাজেনকা ও জে এন্ড জে’র ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল পুনরায় শুরু কোভিড-১৯ মোকাবেলায় বাংলাদেশকে ১শত ভেন্টিলেটর প্রদান করেছে যুক্তরাষ্ট্র ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদানে অনিয়ম রোধে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের প্রতি নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রোহিঙ্গাদের দুর্দশায় মুখ ফিরিয়ে না নিতে বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি যুক্তরাজ্যের আহ্বান ২০২১ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে : শিক্ষামন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃতের সংখ্যা ২ লাখ ২০ হাজার ছাড়িয়েছে আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার প্রতি অস্ত্রবিরতি মেনে চলার আহ্বান জাতিসংঘ মহাসচিবের বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৪ কোটি ছাড়ালো ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ২৬শে মার্চ ঢাকা সফরের আমন্ত্রণ

জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধুর বাংলায় ভাষণের দিনটি ‘বাংলাদেশী ইমিগ্র্যান্ট ডে’ পালনে নিউইয়র্কে কর্মসূচি গ্রহণ

  • আপডেট সময় শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

॥স্টাফ রিপোর্টার॥ জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বাংলায় ভাষণ দিনটিকে ‘বাংলাদেশি ইমিগ্র্যান্ট ডে’ হিসেবে পালনের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।
গতকাল ২৪শে সেপ্টেম্বর ঢাকায় প্রাপ্ত বার্তায় বলা হয়, নিউইয়র্কে স্টেটের আইন পরিষদ ২৫শে সেপ্টেম্বরকে বাংলাদেশী ইমিগ্রান্ট ডে ঘোষণার পর দ্বিতীয়বারের মতো অনুষ্ঠিত হতে চলেছে অভিবাসী বাংলাদেশীদের এই দিবসটি। জাতির জনককে নিবেদিত মুক্তধারা ফাউন্ডেশন আয়োজিত ১০ দিনব্যাপী ভার্চুয়াল বাংলা বইমেলার ৮ম দিনটির বেশিরভাগ জুড়েই রয়েছে ইমিগ্রান্ট ডে নিয়ে অনুষ্ঠানমালা। ইতোমধ্যে এ উপলক্ষে নিউইর্য়কের গভর্নর এন্ড্রু কুমো বাণী প্রদাণ করেছেন।
এন্ড্রু কুমো জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বাংলা ভাষণের দিনটিকে ঐতিহাসিক অভিহিত করে বহুজাতিক ভাষাভাষী মানুষদের মধ্যে বাংলাদেশীরা নিউ ইয়র্ক তথা আমেরিকার সমাজ বিনির্মাণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে চলেছেন বলে উল্লেখ করেন। এছাড়াও বাংলাদেশীরা তাদের কৃষ্টি-সংস্কৃতি-ইতিহাস দিয়ে আমেরিকাকে সমৃদ্ধ করছে বলেও তিনি বাণীতে বলেন।
এছাড়া বাংলাদেশী ইমিগ্রান্ট ডে ঘোষণার প্রস্তাবক সিনেটর স্ট্যাভেস্কি, সিনেটর জন লু এবং কংগ্রেসওম্যান এবং দক্ষিণ এশীয় কংগ্রেশনার কমিটির প্রধান গ্রেস ম্যাং এই দিবসে মুক্তধারা ফাউন্ডেশন আয়োজিত অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করছেন।
নিউইয়র্ক সময় রাত ৯টায় প্রচারিত হবে ২৫শে সেপ্টেম্বর বাংলাদেশী ইমিগ্রান্ট ডে ঘোষণা নিয়ে একটি তথ্যচিত্র। দ্বিতীয় পর্বে থাকছে এ বিষয়ে একটি আলোচনা। আমেরিকার মূলধারার রাজনীতিবিদরা ছাড়াও এতে প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. আব্দুল মোমেন।
২৫শে সেপ্টেম্বরকে বাংলাদেশী ইমিগ্রান্ট ডে ঘোষণার উদ্ভাবক বিশ্বজিত সাহার সঞ্চালনায় এই অনুষ্ঠানে আমেরিকা, বাংলাদেশ ও ইউরোপে প্রবাসী বাঙালিদের নিয়ে কাজ করে থাকেন তাদের অনেকেও উপস্থিত থাকবেন।
উল্লেখ্য, গত ১৪ই জানুয়ারী স্টেট গভর্নর স্বাক্ষরিত বাংলাদেশী ইমিগ্রান্ট ডে ঘোষণাপত্রের কপি ২০ জানুয়ারী বিতরণ করেছেন নিউইয়র্ক স্টেট সেক্রেটারী আলেন্ড্রো এন পলিনো। নিউইর্য়কের মুক্তধারা ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা বিশ্বজিত সাহার চেষ্টায় গত বছর প্রথম রেজ্যুলেশনটি পাশ হয় নিউইয়র্ক স্টেট পার্লামেন্টে। সেটি নবায়ন করার জন্য গত ৯ই জানুয়ারী সিনেটে উপস্থাপন করা হয়।
১৯৭৪ সালের ২৫শে সেপ্টেম্বর। নিউইয়র্কে জাতিসংঘের ২৯তম সাধারণ অধিবেশনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রথম বাংলায় বক্তৃতা করেন।
পরে ২০১৯ সালের ২৫শে সেপ্টেম্বর নিউইয়র্ক স্টেট সেনেটর স্টেভেস্কি এই দিনটিকে ‘বাংলাদেশ ইমিগ্রান্ট ডে’ হিসেবে’ রেজ্যুলেশন পাশ করার জন্য সিনেটে উপস্থাপন করেন এবং দীর্ঘ শুনানির পর এটি সর্বসন্মতিক্রমে পাশ হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!