রবিবার, ০৫ জুলাই ২০২০, ০৭:১৮ অপরাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
পাংশার ১২০ জন নরসুন্দরকে খাদ্য সামগ্রী প্রদান করলেন মিতুল হাকিম ডোনাল্ড ট্রাম্পকে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা ঘোষণা বার্ষিকীতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা বিশ্বে করোনায় মোট ৫ লাখ ২৬ হাজার ৬৬৩ জনের মৃত্যু রাজবাড়ীসহ দেশের ছয়টি জেলায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে ইউনিসেফের নির্বাহী বোর্ডের বার্ষিক অধিবেশনের সমাপনী রাজবাড়ীতে সোনালী ও ইসলামী ব্যাংকের ১৯জন করোনায় আক্রান্ত॥শাখা লকডাউন হচ্ছে রবিবার॥জেলায় আক্রান্ত ৫৪৬জন জাতীয় সংসদে ২০২০-২০২১ অর্থ বছরের ৫লাখ ৬৮হাজার কোটি টাকার বাজেট পাস আমেরিকায় হু হু করে বাড়ছে করোনার নতুন শনাক্তের সংখ্যা॥কমছে মৃত্যু স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে আগামী ৩রা আগস্ট পর্যন্ত চলবে অফিস ও গণপরিবহন করোনার ভয়াবহতা এখনও বাকি : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

রাজবাড়ী জেলার প্রায় সকল মসজিদে ও পারিবারিকভাবে ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২৬ মে, ২০২০

॥স্টাফ রিপোর্টার॥ যথাযোগ্য মর্যাদা ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে গতকাল ২৫শে মে রাজবাড়ী জেলার সর্বত্র পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হয়েছে। মহামারী করোনা ভাইরাসে অনিশ্চিত ভবিষ্যতের আশঙ্কার মধ্যেই এবারের ঈদ উদযাপিত হলো। মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে ঈদকে ঘিরে যে আনন্দ-উচ্ছ্বাস থাকার কথা তা এবার ম্লান করে দিয়েছে ।
করোনা মোকাবিলায় ও সংক্রমণ বিস্তার রোধে সরকারী নির্দেশনায় এবার খোলা মাঠে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়নি। রাজবাড়ী জেলার প্রায় সকল মসজিদের ভিতরে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয়।
এ ছাড়াও রাজবাড়ী শহরের বিভিন্ন এলাকায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে পারিবারিক ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়।
রাজবাড়ী শহরের সজ্জকান্দায় প্রয়াত গণপরিষদ সদস্য কাজী হেদায়েত হোসেনের বাড়ীর উঠানে “কাজী বাড়ীতে” সকাল সাড়ে ৯টায় পারিবারিক ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয়। নামাজে ইমামতি করেন কাজী হেদায়েত হোসেনের মেঝ পুত্র ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী। নামাজে কাজী পরিবারের পুরুষ ও নারী সদস্যসহ ১৮ জন অংশগ্রহণ করেন।
এছাড়াও শহরের বেড়াডাঙ্গা ৩নং সড়কের খোন্দকার বাড়ীর ছাঁদে সকাল ৮টা ৫মিনিটে পারিবারিক ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয়। খোন্দকার পরিবারের ১৬ জন সদস্য নামাজে অংশগ্রহণ করেন। এতে ইমামতি করেন হাফেজ মোঃ ইমরান শেখ। অপরদিকে সকাল সাড়ে ৮টায় ৩নং বেড়াডাঙ্গা জামে মসজিদে ঈদুল ফিতরের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। মসজিদের ইমাম মাওলানা মোঃ মনির হোসেন এতে ইমামতি করেন।
ঈদের প্রতিটি জামাত ও খুতবাহ শেষে মোনাজাতের সময় আবেগে আপ্লুত মুসল্লিরা চোখের জলে গুনাহ থেকে আল্লাহর কাছে মাফ চান। করোনা ভাইরাস দূর করে স্বাভাবিক জীবনের জন্য আল্লাহর কাছে ফরিয়াদ জানান তারা। মোনাজাতে দেশ ও জাতির জন্য কল্যাণ কামনা করা হয়।
তবে ঈদের নামাজ শেষে মুসল্লিদের কোলাকুলি ও হাত মেলানোর চিরাচরিত দৃশ্য দেখা যায়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর