মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
পিএসসি’র নবনিযুক্ত চেয়ারম্যান সোহরাব হোসাইনের শপথ গ্রহণ শীতে করোনা পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে, তাই প্রস্তুতি নিন : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুক্তরাষ্ট্রে ১০ই অক্টোবর নাগাদ করোনায় মারা যেতে পারে ২লাখ ১৮হাজার লোক করোনার সংক্রমণ রোধে রাজবাড়ীতে ১৯৯৪ ব্যাচের উদ্যোগে মাস্ক বিতরণ বিশ্ব জুড়ে এক সপ্তাহে কোভিড-১৯ এ মৃত্যুর সংখ্যা অগ্রহণীয় ভাবে বেশি : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে আল্লামা আহমদ শফী’র জানাযাতে লাখ লাখ মানুষের অংশগ্রহণ শ্রীলংকা সফরের জন্য প্রস্তুতি॥ক্রিকেটাদের করোনা পরীক্ষা শুরু জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে অংশ নিচ্ছেন না মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ‘সরকারের গৃহীত পদক্ষেপে পেঁয়াজের বাজারে দাম কমতে শুরু করেছে’ জাপানের নতুন প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন

নিজস্ব উদ্যোগে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরী করে বিতরণ শুরু করছে রাজবাড়ী জেলা পুলিশ

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২৬ মার্চ, ২০২০

॥শেখ মামুন॥ করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে নিজস্ব উদ্যোগে বিপুল পরিমাণ হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরী ও বিনামূল্যে বিতরণের কার্যক্রম শুরু করেছে রাজবাড়ী জেলা পুলিশ।
বেলা ১২টার দিকে পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান পিপিএম-বার জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদেরকে সাথে নিয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের গিয়ে জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগমের হাতে জেলা পুলিশের তৈরীকৃত হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ৫০ এম.এল-এর কয়েকটি প্লাস্টিকের বোতল তুলে দেন।
এ সময় সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ নুরুল ইসলামসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। জেলা প্রশাসক এই হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরী ও বিনামূল্যে বিতরণের উদ্যোগ নেয়ায় পুলিশ সুপারসহ জেলা পুলিশকে ধন্যবাদ জানান। সময়োপযোগী এই উদ্যোগ নেয়ায় সিভিল সার্জনও পুলিশ সুপারকে ধন্যবাদ জানান। এরপর দুপুর থেকে রাজবাড়ী শহরের বিভিন্ন স্থানে পুলিশ সদস্যরা স্বেচ্ছাসেবীদের সহযোগিতায় হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করে। এছাড়াও মাস্ক ও সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করা হয়।
সরেজমিনে রাজবাড়ী পুলিশ লাইন্সের ড্রিলশেডে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরীর স্থানে গিয়ে দেখা যায়, সেখানে এক বিশাল কর্মযজ্ঞ চলছে। বড় ড্রামে স্পিরিট (অ্যালকোহল), প্রচুর লেবু, কেমিক্যাল, নীল রংসহ নানা উপকরণ রয়েছে। ইউনিফর্ম পরা অর্ধশতাধিক পুলিশ সদস্য উপাদানগুলো দ্রবণ-মিশ্রণ, বোতলজাতকরণ, স্টিকার লাগানোসহ নানা কাজে ব্যস্ত রয়েছে। নিয়ম-কানুন মেনে যথাসম্ভব মানসম্পন্নভাবে হ্যান্ড স্যানিটাইজারগুলো তৈরী করা হচ্ছে।
এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান বলেন, বর্তমানে হ্যান্ড স্যানিটাইজার খুবই গুরুত্বপূর্ণ ও প্রয়োজনীয় একটি জিনিসে পরিণত হয়েছে। অথচ মানুষ প্রয়োজন অনুযায়ী বাজারে সেগুলো পাচ্ছে না। পেলেও অনেকেরই তা আবার ক্রয় করার সামর্থ্য নাই। তাই আমরা প্রাথমিকভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছি নিজেরাই ৫০ হাজার হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরী করে বিনামূল্যে বিতরণ করার। শহরের বিভিন্ন স্থানসহ বাড়ীতে বাড়ীতে গিয়ে সেগুলো বিতরণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর