fbpx
শুক্রবার, ০৩ এপ্রিল ২০২০, ০৬:২৫ অপরাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
পাংশায় সামাজিক দূরত্ব বজায় নিশ্চিতকরণে স্থানীয় প্রশাসন ও সেনাবাহিনীর যৌথ অভিযান করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে গোয়ালন্দে পুলিশের কার্যক্রম পরিদর্শনে অতিরিক্ত ডিআইজি বালিয়াকান্দিতে ভিক্ষুকদের বাড়ী বাড়ী খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিলেন ইউএনও রাজবাড়ীতে উত্তরণ ও মিরা ফাউন্ডেশনের খাদ্য বিতরণ করোনা সন্দেহে পাংশা হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে একজন ভর্তি রাজবাড়ী পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর তিতুর খাদ্য বিতরণ রাজবাড়ী জেলার ৫টি উপজেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে ২৪জনের জরিমানা পাংশায় ভ্রাম্যমান আদালতে ট্রাক ড্রাইভারসহ দুই মোটর সাইকেল আরোহীকে জরিমানা রাজবাড়ী পৌরসভার ৫০ জন পরিচ্ছন্নতা কর্মীর মধ্যে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে রাজবাড়ীর বিভিন্ন বাজারে যৌথ বাহিনীর অভিযান

রাজবাড়ীর রাজধরপুরে জমি লিখে না দেওয়ায় ছেলে ও পুত্রবধূর মারপিটে বৃদ্ধা মা হাসপাতালে

  • আপডেট সময় শুক্রবার, ৬ মার্চ, ২০২০

॥রফিকুল ইসলাম॥ রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের রাজধরপুর গ্রামে জমি লিখে না দেয়ায় ছেলে ও পুত্রবধূর মারপিটে আছিয়া বেগম(৬০) নামে এক বৃদ্ধা গুরুতর আহত হয়ে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছিয়া বেগমের মেয়ে ফিরোজা বেগম জানান, তার পিতা আব্দুল খালেক মিয়া মারা যাওয়ার সময় মায়ের নামে ৮০ শতাংশ জমি লিখে দেন। তারা ২ ভাই ও ২ বোন। কিছুদিন ধরে তার ছোট ভাই রইচ মিয়া ওই জমি লিখে দেয়ার জন্য মায়ের উপর চাপ সৃষ্টি করে আসছে। কিন্তু মা ওই জমি লিখে না দেয়ায় গত ৪ঠা মার্চ রাত ৮টার দিকে ছোট ভাই রইচ মিয়া, তার স্ত্রী অঞ্জনা বেগম, ছেলে আমির হামজা এবং তাদের মামা(আছিয়া বেগমের ভাই) আজিজ খান ও তার স্ত্রী লাভলী বেগম মাকে প্রচন্ড মারধর করে। পরে তাকে উদ্ধার করে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে এনে ভর্তি করা হয়।
এ ঘটনায় আছিয়া বেগমের বড় ছেলে নাছির মিয়া গতকাল ৫ই মার্চ উক্ত ৫জনের বিরুদ্ধে বালিয়াকান্দি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন।
নাছির মিয়া বলেন, তার পিতার মৃত্যুর পর তিনি মাকে দেখাশোনা করে আসছেন। কিছুদিন ধরে ছোট ভাই রইচ তার মার নামে থাকা জমি লিখে দেয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করে আসছে। কিন্তু মা এতে রাজি না হওয়ায় বুধবার রাতে ছোট ভাই রইচ অন্যান্যরা তার মাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও মারপিট করে।
বালিয়াকান্দি থানার ওসি একেএম আজমল হুদা অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, এ বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
এদিকে স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহল মা আছিয়া বেগমের মারপিটের ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার জন্য থানায় ছেলের পক্ষে তদবীর করছে বলে জানা গেছে। ফলে ঘটনার সাথে অভিযুক্ত কেউ গ্রেফতার হয়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!