fbpx
শনিবার, ২৮ মার্চ ২০২০, ০৬:৫৬ পূর্বাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
পাংশায় অনুমোদন বিহীন মদিনা ক্লিনিকে সিজারিয়ান রোগীর মৃত্যু ফরিদপুরের দুইটি হাসপাতালের চিকিৎসকদের মধ্যে পার্সোনাল প্রোটেকশন ইকুইপমেন্ট বিতরণ করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে লকডাউন ঃ জেলা জুড়ে নীরবতা অগ্নিদগ্ধ হয়ে গোয়ালন্দের স্যানিটারী ইন্সপেক্টর শামীমের রহস্য ঘেরা মৃত্যু নিয়ে জনমনে প্রশ্ন! করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে পাংশা পৌর মেয়রের নানামুখী পদক্ষেপ বেতনের জমানো টাকা দিয়ে ত্রাণ বিতরণ করছে বালিয়াকান্দির জয় বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে বিশ্বের সর্বোচ্চ ভবনে লাল সবুজের পতাকা জেনে নিন করোনা ভাইরাসের চিকিৎসা হবে রাজধানীর যেসব হাসপাতালে রাজবাড়ীর সাবেক ডিসি যুগ্ম-সচিব রফিকুল ইসলাম খানকে মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের সদস্য পদে বদলী রাজবাড়ীতে ৪৯তম মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপিত

আজ বড়দিন

  • আপডেট সময় বুধবার, ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৯

॥স্টাফ রিপোর্টার॥ আজ ২৫শে ডিসেম্বর খ্রিষ্ট ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব বড়দিন। এই দিনে খ্রিষ্টধর্মের প্রবর্তক যিশুখ্রিষ্ট বেথলেহেমে জন্মগ্রহণ করেছিলেন।
খ্রিষ্টধর্মালম্বীরা বিশ্বাস করেন, সৃষ্টি-কর্তার মহিমা প্রচার এবং মানবজাতিকে সত্য ও ন্যায়ের পথে পরিচালিত করতে প্রভু যিশুর এই ধরায় আগমন ঘটে।
অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশের খ্রিষ্টধর্মানুসারীরাও যথাযথ ধর্মীয় আচার, আনন্দ-উৎসব ও প্রার্থনার মধ্য দিয়ে দিনটি উদযাপন করবেন।
আজ বুধবার সরকারী ছুটির দিন। দিনটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খ্রিষ্টধর্মাবলম্বীদের শুভেচ্ছা জানিয়ে পৃথক বাণী দিয়েছেন।
রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে বলেন, বাংলাদেশ বিশ্বে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। এখানে সবধর্মের মানুষ নিজ নিজ ধর্ম, আচার ও অনুষ্ঠানাদি স্বাধীনভাবে পালন করে আসছেন। বিদ্যমান সম্প্রীতির এই সুমহান ঐতিহ্যকে আরো সুদৃঢ় করতে ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সকলকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে অবদান রাখতে হবে।
জাতির পিতা একটি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন উল্লেখ করে তিনি একটি সুখী-সমৃদ্ধ ও অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠনে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান।
প্রধানমন্ত্রী বড়দিনে খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীসহ সকল নাগরিকের শান্তি কল্যাণ ও সমৃদ্ধি কামনা করেন।
তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বন্ধন অটুট রেখে ঐক্যবদ্ধভাবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত ও সুখী-সমৃদ্ধ স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ে তোলার আহবান জানান।
বড়দিন উপলক্ষে গতকাল বুধবার রাতে গির্জায় বিশেষ প্রার্থনা এবং আজ সকাল থেকে বড়দিনের প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হবে। দিনটি উপলক্ষে অনেক খ্রিষ্টান পরিবারে কেক তৈরি হবে, থাকবে বিশেষ খাবারের আয়োজন। দেশের অনেক অঞ্চলে কীর্তনের পাশাপাশি ধর্মীয় গানের আসর বসবে।
রাজধানীর তেজগাঁও ক্যাথলিক গির্জায় (পবিত্র জপমালার গির্জা) বড়দিনের বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করা হয়েছে। গির্জা ও এর আশপাশে রঙিন বাতি জ্বালানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। ভেতরে সাজানো হয়েছে ক্রিসমাস ট্রি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!