fbpx
মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০, ০৮:৩২ পূর্বাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
রাজবাড়ী-২ আসনের এমপি জিল্লুল হাকিমের উদ্যোগে ১২হাজার দরিদ্রদের মাঝে খাদ্য বিতরণ শুরু রাজবাড়ীতে পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে খাদ্য বিতরণ করলেন এমপি কাজী কেরামত আলী জনসমাগম ঠেকাতে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ফেরী ঘাটে কড়া পাহাড়ার ব্যবস্থা রাজবাড়ীর সেই ভ্রাম্যমাণ মেডিক্যাল টিমকে পিপিই-মাস্ক দিলেন মিতুল হাকিম রাজবাড়ীতে উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ইউএইচএফপিও’র নিকট পিপিই হস্তান্তর এবার করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় জরুরী র্বাতা পৌছাতে ড্রোন ব্যবহার রাজবাড়ী সদর উপজেলার কৃষকদের মধ্যে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ রাজবাড়ী পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলমের ব্যক্তিগত উদ্যোগে খাদ্য বিতরণ রাজবাড়ীর পাংশায় করোনা উপসর্গে ট্রাক চালকের মৃত্যু॥এলাকা লকডাউন॥পুলিশ উদ্যোগে জানাযা (ভিডিওসহ) করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় ৭২,৭৫০ কোটি টাকার প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী

ন্যায় বিচার নিশ্চিত করতে রাষ্ট্রের তিনটি বিভাগের মধ্যে সমন্বয় থাকতে হবে —প্রধানমন্ত্রী

  • আপডেট সময় রবিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯

॥স্টাফ রিপোর্টার॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, শান্তি, ন্যায় বিচার ও উন্নয়ন নিশ্চিত করার পাশাপাশি সুষ্ঠুভাবে রাষ্ট্র পরিচালনার জন্য রাষ্ট্রের তিনটি বিভাগ- নির্বাহী, আইন ও বিচার বিভাগের মধ্যে অবশ্যই যথাযথ সমন্বয় ও সুসম্পর্ক থাকতে হবে।
তিনি বলেন, ‘আমি সব সময়ে বিশ্বাস করি রাষ্ট্রের তিনটি বিভাগ নির্বাহী, আইন ও বিচার বিভাগ একটি রাষ্ট্রের জন্য অনিবার্য। এই বিভাগগুলো তাদের নিজেদের আইন অনুযায়ী পরিচালিত হবে। ন্যায় বিচার, শান্তি এবং সার্বিক উন্নয়ন নিশ্চিত করতে এই বিভাগগুলোর মধ্যে যথাযথ সমন্বয় জরুরী।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল ৭ই ডিসেম্বর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে(বিআইসিসি) সুপ্রীম কোর্ট আয়োজিত ‘শান্তি ও উন্নয়নের জন্য ন্যায় বিচার’ শীর্ষক দিনব্যাপী জাতীয় বিচার বিভাগীয় সম্মেলন ২০১৯ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, আমরা এমন একটি অবস্থান আশা করি যেখানে রাষ্ট্রের এই তিনটি বিভাগ একে অপরের কার্যক্রমে হস্তক্ষেপ করবে না। এতে ন্যায় বিচার ও উন্নয়ন নিশ্চিত করার পাশাপাশি শান্তি বজায় রাখা ও সুষ্ঠুভাবে রাষ্ট্র পরিচালনায় বিঘœ ঘটবে না।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, মহামান্য রাষ্ট্রপতি ‘ওয়ারেন্ট অব প্রিসিডেন্স’ তৈরি করেছেন এবং এটি পরিবর্তনের কর্তৃত্ব কেবল তাঁরই। তিনি (রাষ্ট্রপতি) ‘রুলস অব বিজনেস’ও তৈরি করেছেন।
তিনি বলেন, ‘সংবিধানের ৫১(১) এবং ৫৫(৫) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী রাষ্ট্রপতির কার্যক্রম নিয়ে আদালতে কোন প্রশ্ন উঠতে পারবে না। তবে কখনো কখনো রাষ্ট্রপতির জুরিডিকশনের অধীন ইস্যুতে অর্ডার দিতে দেখছি।’
প্রধানমন্ত্রী আশা করেন যে, বিচারকরা তাদের মেধা ও সৃষ্টিশীলতা কাজে লাগানোর পাশপাশি ন্যায় বিচার ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় কাজ করে যাবেন।
শেখ হাসিনা প্রধান বিচারপতির প্রস্তাব অনুযায়ী অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো আইন বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পদক্ষেপ জোরদারে আইনমন্ত্রীকে নির্দেশ দেন।
প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক। আইন ও বিচার বিভাগের সচিব মোঃ গোলাম সারোয়ার, সুপ্রীম কোর্টের রেজিস্ট্রার মোঃ আলী আকবর এবং মুন্সীগঞ্জের সিনিয়র দায়রা জজ হোসনে আরা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।
সুপ্রীম কোর্টের আপিল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি এবং সারা দেশের নিম্ন আদালতের বিচারকগণ সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন।
জাতীয় বিচার বিভাগীয় সম্মেলন উপলক্ষে অনুষ্ঠানে একটি ভিডিও তথ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!