বৃহস্পতিবার, ০৯ জুলাই ২০২০, ০৬:৫৯ পূর্বাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
সাংবাদিক ওয়াহিদ মিলটনের মাতা আম্বিয়া বেগমের আজ প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী রাজবাড়ীতে ১বছরের শিশু সুরাইয়াকে পানিতে ফেলে হত্যা॥পাষাণী মা গ্রেফতার রাজবাড়ী সদরে উপসর্গ নিয়ে মৃত ১জনসহ জেলায় আরও ১১জন জনের করোনা শনাক্ত॥মোট আক্রান্ত ৬৩৯জন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রাজবাড়ী জেলা প্রশাসনের দুইটি সভা করোনা ভাইরাস বাতাসেও ছড়াতে পারে॥এ দাবী পর্যালোচনা করছে ডব্লিওএইচও কালুখালীর মদাপুর ইউনিয়নে বিট পুলিশিং কার্যক্রম উদ্বোধন করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় যশোর সেনানিবাসের সেনা সদস্যদের জনকল্যাণমূলক কার্যক্রম অব্যাহত মুজিববর্ষ ও আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে কালুখালীর বোয়ালিয়ায় আ’লীগের উদ্যোগে বৃক্ষ রোপণ উদ্বোধন রাজবাড়ী জেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির জরুরী সভায় বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গৃহীত গোয়ালন্দের বিদায়ী ও নবাগত ইউএনও’র সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত

বাংলাদেশী রসনায় তৃপ্ত সিঙ্গাপুরের অধিবাসী ও বিদেশী কুটনীতিকগণ

  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর, ২০১৯

॥বিশেষ প্রতিনিধি॥ সিঙ্গাপুরে প্রথম বারেরমতো আয়োজিত হলো বাংলাদেশ রসনা উৎসব। গত ১১ই নভেম্বর সিঙ্গাপুরের মান্দারিন অরচার্ড হোটেলের ট্রিপল থ্রি রেস্টুরেন্টে উৎসবের উদ্বোধন করেন সিঙ্গাপুরে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান।
বাংলাদেশ হাইকমিশনের আয়োজনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত, কুটনীতিক, সরকারী কর্মকর্তা, ব্যবসায়ী ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মিলে ৬০জন অতিথি উপস্থিত ছিলেন এবং তাদেরকে বাংলাদেশী খাবার সহযোগে আপ্যায়ন করা হয়।
গত ১১ থেকে ১৭ই নভেম্বর পর্যন্ত সপ্তাহ ব্যাপী চলমান রসনা উৎসব সবার জন্য উন্মুক্ত বিধায় সিঙ্গাপুরের স্থানীয় অধিবাসীগণও বাংলাদেশী খাবারের স্বাদ গ্রহণ করছেন এবং বাংলাদেশী সংস্কৃতির সাথে পরিচিত হতে পেরে তাদের সন্তুষ্টির কথা প্রকাশ করেন।
সংক্ষিপ্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিদের স্বাগত জানিয়ে হাইকমিশনার মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বাংলাদেশ ও সিঙ্গাপুরের মধ্যে জনগণ পর্যায়ে সম্পর্ক বৃদ্ধির লক্ষ্যে হাইকমিশনের পক্ষ থেকে এই প্রয়াস। ভাষার ভিন্নতা থাকলেও খাবারের স্বাদ ও সঙ্গীতের মুর্ছনা হৃদয়ঙ্গম করে ভিন্ন দেশের সংস্কৃতির সঙ্গে পরিচিতি হওয়া সম্ভব।
রসনা উৎসবে বাংলাদেশের প্যানপ্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলের প্রতিথযশা রন্ধন শিল্পী হাবিবুর রহমান ও তার দু’জন সহযোগী বাংলাদেশী ঐতিহ্যবাহী খাবার প্রস্তুত করবেন। রেস্টুরেন্টের কর্মচারীগণ বাংলাদেশী পোষাকে সজ্জিত হয়ে অতিথিদের খাবার পরিবেশন করছেন। একজন প্রবাসী বাংলাদেশী তার বাঁশির সুরের ইন্দ্রজালে অতিথিদের মুগ্ধ করেন।
রেস্টুরেন্টের প্রবেশ মুখে বাংলাদেশী হস্তশিল্প, কারুপণ্য ও ঐতিহ্যবাহী উপাদান দিয়ে সজ্জিত করা হয়। রসনা উৎসবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এবং রেভ সিস্টেম নামীয় বাংলাদেশী প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের বিপণন সামগ্রীর প্রদর্শনী ও প্রচার করছেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিগণ প্রদর্শনীস্থল ঘুরে দেখেন এবং সামগ্রিক আয়োজনের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর