বৃহস্পতিবার, ০৯ জুলাই ২০২০, ০৮:৪৩ পূর্বাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
সাংবাদিক ওয়াহিদ মিলটনের মাতা আম্বিয়া বেগমের আজ প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী রাজবাড়ীতে ১বছরের শিশু সুরাইয়াকে পানিতে ফেলে হত্যা॥পাষাণী মা গ্রেফতার রাজবাড়ী সদরে উপসর্গ নিয়ে মৃত ১জনসহ জেলায় আরও ১১জন জনের করোনা শনাক্ত॥মোট আক্রান্ত ৬৩৯জন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রাজবাড়ী জেলা প্রশাসনের দুইটি সভা করোনা ভাইরাস বাতাসেও ছড়াতে পারে॥এ দাবী পর্যালোচনা করছে ডব্লিওএইচও কালুখালীর মদাপুর ইউনিয়নে বিট পুলিশিং কার্যক্রম উদ্বোধন করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় যশোর সেনানিবাসের সেনা সদস্যদের জনকল্যাণমূলক কার্যক্রম অব্যাহত মুজিববর্ষ ও আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে কালুখালীর বোয়ালিয়ায় আ’লীগের উদ্যোগে বৃক্ষ রোপণ উদ্বোধন রাজবাড়ী জেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির জরুরী সভায় বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গৃহীত গোয়ালন্দের বিদায়ী ও নবাগত ইউএনও’র সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত

পাংশার ধুলিয়াটে বিরোধপূর্ণ জমি থেকে জোরপূর্বক ধান কেটে নেওয়ার অভিযোগ

  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর, ২০১৯

॥মোক্তার হোসেন॥ রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলার মৌরাট ইউপির ধুলিয়াট গ্রামের নজরুল ইসলাম খানের ভোগ দখলীয় ৯৫ শতাংশ বিরোধপূর্ণ জমি থেকে প্রতিপক্ষের লোকজন তাদের অনুসারী ভাড়াটিয়া কিছু লোকজন দিয়ে গতকাল ১৪ই নভেম্বর সকালে আধাপাকা ধান কেটে নিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
এ নিয়ে দু’পক্ষের লোকজনের মাঝে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে পাংশা মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেন।
জানা যায়, গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৬টার দিকে প্রতিপক্ষ জোসনা খান তার ছেলেরাসহ ২৫/৩০জন ভাড়াটিয়া লোকজন দিয়ে নজরুল ইসলাম খানের দখলীয় ৯৫ শতাংশ জমির আধাপাকা ধান কেটে নেওয়াসহ গাছ থেকে বেশ কিছু নারকেল-সুপারী পেরে নেয়। এ নিয়ে দু’পক্ষের লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।
খবর পেয়ে পাংশা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আহসান উল্লাহ-এর নেতৃত্বে এস.আই মামুনসহ সঙ্গীয় পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি শান্ত করে।
ক্ষতিগ্রস্ত নজরুল ইসলাম খান জানান, ৯৫ শতাংশ জমি নিয়ে জোসনা খানের সাথে তার দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছে। বিরোধপূর্ণ জমি নিয়ে বিজ্ঞ আদালতে মামলা চলমান আছে। প্রচলিত আইন উপেক্ষা করে ভাড়াটিয়া লোকজন দিয়ে তার ভোগদখলীয় জমি থেকে জোরপূর্বক আধাপাকা ধান কেটে নেওয়ায় সবমিলে দেড় লাখ টাকার ক্ষতির দাবীর পাশাপাশি নজরুল ইসলাম খানসহ তার পরিবারের লোকজনের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করা হচ্ছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।
পাংশা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আহসান উল্লাহ জানান, বিরোধপূর্ণ জমি থেকে জোরপূর্বক ধান কেটে নেওয়ার খবর পাওয়ার পর সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে উভয়পক্ষের মধ্যে শান্তিপূর্ণ অবস্থান নিশ্চিত করা হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর