রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৮:৫১ অপরাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
জাপান ও সিঙ্গাপুরে ৮দিনের সরকারী সফরে আজ ঢাকা ত্যাগ করবেন রাষ্ট্রপতি শুধু ফেসবুক নিয়ে থাকলেই হবে না-কম্পিউটারও শিখতে হবে —জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম ইলিশ রক্ষা অভিযানে রাজবাড়ীর পদ্মা নদীতে আটক ৫১ জেলের ১২দিনের জেল নিউইয়র্ক সিটি’র ৫জন সিনেটর আজ আসছেন কালুখালীতে পূজা উদযাপন পরিষদের নতুন কমিটি গঠন কালুখালীর মদাপুর থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার র‌্যাবের অভিযানে নগরকান্দা থেকে গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার এবার ফরিদপুরে আড়াই বছরের শিশু রহমতকে খুন করল পাষান্ড বাবা রাজবাড়ীর শহীদওহাবপুরের নিমতলায় গাঁজাসহ বিক্রেতা নিয়ামত ও জাহিদ গ্রেপ্তার কালুখালীতে ইলিশ ধরার সময় আটক ৬জন জেলের কারাদন্ড

পাংশায় হুমকির মুখে কশবামাজাইল ইউপির কলাবাড়ীয়ার ঠুটা রাস্তা

  • আপডেট সময় বুধবার, ২ অক্টোবর, ২০১৯

॥মোক্তার হোসেন॥ রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলায় পদ্মা ও গড়াই নদীতে আকস্মিকভাবে পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। উপজেলার হাবাসপুর ইউপির বন্যাকবলিত চর আফড়া, পূর্ব চর আফড়া ও শাহমীরপুরসহ পার্শ্ববর্তী এলাকার ৫ শতাধিক পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।
এছাড়া গড়াই নদীতে পানি বৃদ্ধির ফলে গড়াই তীরবর্তী কশবামাজাইল ইউপির কলাবাড়ীয়া ঠুটা নামক মাটির রাস্তাটি হুমকীর মুখে পড়েছে। সেখানকার রাস্তার কয়েকটি স্থানে ভাঙনরোধে মাটিভর্তি চটেরবস্তা ফেলে রাস্তা উঁচু করেছে গ্রামবাসী লোকজন। ওই রাস্তার প্রায় আড়াইশত ফুট ভাঙনের আশংকা করছেন স্থানীয়রা। পানির তোরে রাস্তাটি ভেঙে গেলে বিস্তীর্ণ এলাকার ধানের ফসল তলিয়ে যাবে। ব্যাপক ক্ষতির শিকার হবেন এলাকার কৃষক। একারণে সেখানে জরুরীভাবে জিও ব্যাগ ফেলানোর দাবী উঠেছে।
জানা যায়, গতকাল মঙ্গলবার ১লা অক্টোবর সকালে পাংশার এসিল্যান্ড ও ভারপ্রাপ্ত ইউএনও সাদীয়া শাহনাজ খানম এবং পানি উন্নয়ন বোর্ডের এসডি এস.এম নুরুন্নবী সরেজমিন কশবামাজাইল ইউপির নাদুরিয়া ও কলাবাড়ীয়া ঠুটা রাস্তা পরিদর্শন ও পর্যবেক্ষণ করেন। এ সময় কশবামাজাইল ইউপির চেয়ারম্যান মোঃ কামরুজ্জামান খান, পাংশা উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ আলমগীর আকন ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-সহকারী প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।
পাংশার এসিল্যান্ড ও ভারপ্রাপ্ত ইউএনও সাদীয়া শাহনাজ খানম জানান, সরেজমিন গড়াই তীরবর্তী ওই এলাকা পরিদর্শন ও পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে। রাস্তাটির ভাঙনরোধে পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষ জরুরীভাবে ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।
পানি উন্নয়ন বোর্ডের এসডি এস.এম নুরুন্নবী জানান, আকস্মিকভাবে পানি বৃদ্ধির ফলে কশবামাজাইল ইউপির কলাবাড়ীয়ার ঠুটা মাটির রাস্তার কিছু অংশ ভাঙনের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। ভাঙন রোধে জরুরীভাবে প্রকল্প গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান তিনি।
কশবামাজাইল ইউপির চেয়ারম্যান মোঃ কামরুজ্জামান খান জানান, কলাবাড়ীয়ার ঠুটা নামক মাটির রাস্তার কিছু অংশে স্থানীয়রা মাটি ভর্তি চটের বস্তা ফেলেছে। প্রায় আড়াইশ ফুট রাস্তার অবস্থা খুবই খারাপ। সেখানে ভাঙনের আশঙ্কা করা হচ্ছে। জরুরীভাবে জিও ব্যাগ ফেলানো দরকার। বন্যার পানিতে রাস্তাটি ভেঙে গেলে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়ে ধানের ফসল তলিয়ে যাবে। রাস্তাটির ভাঙনরোধে জরুরীভাবে জিও ব্যাগ ফেলানোর দাবী জানান তিনি।
এদিকে, পদ্মা নদীতে আকস্মিকভাবে পানি বৃদ্ধির ফলে হাবাসপুর ইউপির চর আফড়া, পূর্ব চর আফড়া ও শাহমীরপুরসহ আশপাশের প্রায় পাঁচ শতাধিক পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন বলে জানান পাংশা উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ আলমগীর আকন। গত সোমবার পিআইও মোঃ আলমগীর আকন ও হাবাসপুর ইউপির চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল আলীম মন্ডল ইঞ্জিনচালিত নৌকাযোগে সরেজমিন বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শন ও পর্যবেক্ষণ করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!