fbpx
সোমবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৭:০৪ পূর্বাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
বালুবাহী ট্রাক অবাধে দাপিয়ে চলায় নাগরিক জীবন বিপন্ন॥প্রশাসন নির্বিকার॥সড়কের বেহাল দশা রাজবাড়ীতে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিলের ২১লক্ষ টাকার অনুদানের চেক বিতরণ দীর্ঘ চার বছর পর পাংশায় উপজেলা আ’লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন আজ॥নতুন মুখের আভাস রাজবাড়ী সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোলস ক্লাবের ফেসবুক গ্রুপের সদস্য হওয়ার আহ্বান ঢাকা রেঞ্জে জানুয়ারী মাসের শ্রেষ্ঠ রাজবাড়ী থানার এস.আই হিরণ রাজবাড়ী টাউন মক্তব সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্টুডেন্ট কাউন্সিল নির্বাচন সরকার প্রতিটি স্কুলে মুজিব বর্ষ পালনের জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছে —এমপি কাজী কেরামত আলী পাংশায় ২৬ বোতল ফেন্সিডিলসহ বিক্রেতা প্রল্লাদ মালো গ্রেফতার ভোক্তা অধিদপ্তরের অভিযানে রাজবাড়ীর ২টি ইটভাটার ৯০হাজার টাকা জরিমানা দৌলতদিয়ায় পদ্মা নদীতে ধরা পড়লো ২৫ কেজির বাগাইড়

রাজবাড়ীতে হ্যান্ডকাপসহ পালিয়ে যাওয়া দুই আসামী পৌরসভার পুকুরে থেকে পুনরায় গ্রেফতার

  • আপডেট সময় শুক্রবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৯

॥শেখ মামুন॥ গতকাল ২২শে আগস্ট রাত ৮টার দিকে রাজবাড়ী কোর্ট চত্বরে অন্যান্য আসামীদের সাথে শহিদুল ইসলাম মামুন(৩৩) ও শাকিল প্রামানিক(২১) নামের মোটর সাইকেল চুরির মামলার দুই আসামীকে জেল হাজতে(জেলা কারাগারে) নেয়ার জন্য প্রিজন ভ্যানে তোলা হচ্ছিল।
এ সময় তারা কোর্ট পুলিশে হেফাজত থেকে হ্যান্ডকাপসহ দৌড় দিয়ে পরিত্যাক্ত কারাগারের পাশ দিয়ে থানার বাউন্ডারী ওয়াল টপকে অন্ধকারের মধ্যে পালিয়ে যায়। এ ঘটনার পর পুলিশের মধ্যে তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়। পুলিশ তখন কোর্টের আশে পাশের অন্ধকার এলাকায় অভিযান শুরু করে। দুই ঘন্টার পর থানার পার্শ্ববর্তী পৌরসভার পুকুরের পানির মধ্যে লুকিয়ে থাকা অবস্থায় থানা পুলিশ তাদেরকে ২জনকে পুনরায় আটক করতে সক্ষম হয়।
রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(প্রশাসন) মোঃ সালাহ উদ্দিন জানান, গত বুধবার রাতে রাজবাড়ী থানার পুলিশ অভিযান চালিয়ে মোটর সাইকেল চুরির মামলায় ৮জনকে গ্রেফতার করে। গতকাল ২২শে আগস্ট তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করার পর বিজ্ঞ বিচারক তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরণের আদেশ দেন। এরপর তাদেরকে কোর্ট পুলিশের হাজতখানায় রাখা হয়। সেখান থেকে রাত ৮টার দিকে কোর্ট পুলিশের তত্ত্বাবধানে তাদেরকে জেল হাজতে নেয়ার জন্য প্রিজন ভ্যানে তোলার সময় শহিদুল ইসলাম মামুন ও শাকিল প্রামানিক কৌশলে হ্যান্ডকাপসহ দৌড়ে পালিয়ে যায়। তাৎক্ষণিকভাবে কোর্ট পুলিশের পাশাপাশি রাজবাড়ী থানা ও টহল টিমসহ জেলা পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের সদস্যরা ওই এলাকা কর্ডন(ঘেরাও) করে তল্লাশী শুরু করে। একপর্যায়ে থানা সংলগ্ন পৌরসভার পিছনের পুকুরের পানির মধ্যে শরীরের নাক পর্যন্ত ডুবিয়ে লুকিয়ে থাকা অবস্থায় তাদেরকে আটক করা সম্ভব হয়।’ শহিদুল ইসলাম মামুন রাজবাড়ী সদর উপজেলার খানখানাপুর মল্লিকপাড়ার শামছুল সরদারের ছেলে এবং শাকিল প্রামানিক গোয়ালন্দ উপজেলার বালিয়াপাড়া গ্রামের কাজল প্রামানিকের ছেলে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!