বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০৮:৫৮ অপরাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
লম্পট তারিকুলের বিচার ও মা’কে ফিরে পেতে চায় প্রতিবন্ধী সন্তানরা॥ডিসির নিকট স্মারকলিপি প্রদান বালিয়াকান্দিতে বাজারে পেঁয়াজের দাম মনিটরিং করলেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব তুরস্কের বিরুদ্ধে এবার যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা পাংশায় দুইটি সংস্থা পরিদর্শন করলেন মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক পাংশার হাবাসপুরে বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস পালিত জেন্ডার ভিত্তিক সহিংসতা প্রতিরোধে পুরুষদের দায়িত্ব-ভূমিকা শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত কালুখালীতে জব্দকৃত আড়াই মণ ইলিশ মাছ এতিমখানায় বিতরণ দলীয় সমর্থক আবু ডাক্তারের মৃত্যুতে রাজবাড়ী জেলা আওয়ামীলীগের শোক রাজবাড়ীতে বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস ও স্যানিটেশন মাস উপলক্ষে র‌্যালী-হাত ধোয়া প্রদর্শনী ও আলোচনা সভা রাজবাড়ীতে বিশ্ব সাদা ছড়ি নিরাপত্তা দিবস পালিত

বৈরী আবহাওয়ায় নদী উত্তাল॥দৌলতদিয়ায় ফেরী-লঞ্চ চলাচল ব্যাহত॥৭কিলোমিটার জুড়ে যানবাহনের সারি

  • আপডেট সময় শুক্রবার, ৯ আগস্ট, ২০১৯

॥স্টাফ রিপোর্টার॥ বৈরী আবহাওয়া ও নদীতে তীব্র স্রোতের কারণে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ও মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া নৌপথে ফেরী চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। এর পাশাপাশি শিমুলিয়া-কাঠাঁলবাড়ি নৌপথে ফেরী চলাচল বিঘ্ন হওয়ায় অনেক গাড়ি এই রুটে আসায় দৌলতদিয়া ঘাটে দীর্ঘ ৭কিলোমিটার যানজট তৈরী হয়েছে। আটকা পড়ছে কোরবানীর পশুবাহি গাড়ি ও যাত্রীবাহী বাস।
কোরবানীর পশুবাহি গাড়ি ও যাত্রীবাহি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পার করায় তিন দিন ধরে আটকে আছে সাধারণ পণ্যবাহী গাড়ি। বৃষ্টিতে ভিজে পশু, যাত্রী ও চালকেরা দুর্ভোগ পোহাচ্ছে।
গতকাল ৮ই আগস্ট সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত দৌলতদিয়া ঘাট ঘুরে দেখা যায়, ফেরী ঘাট থেকে দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়কের গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদ পর্যন্ত সাত কিলোমিটার জুড়ে গাড়ির লাইন। কোথাও কোথাও গাড়ির লাইন দুই-তিন সারি হয়েছে। এসব লাইনে যাত্রীবাহি বাস, কোরবানীর পশুবাহি ট্রাক এবং সাধারণ পন্যবাহি ট্রাক রয়েছে। তবে অধিকাংশ সাধারণ পন্যবাহি ট্রাক গত সোমবার দিবাগত মধ্যরাত থেকে আটকে আছে বলে চালকরা জানান।
বৈরী আবহাওয়ার কারণে নদী উত্তাল থাকার পাশাপাশি নদীতে প্রচন্ড স্রোত থাকায় ফেরী চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। এর সাথে শিমুলিয়া-কাঠাঁলবাড়ি নৌপথের অধিকাংশ গাড়ি এই রুটে আসায় গাড়ির বাড়তি চাপ পড়েছে। বৈরী আবহাওয়ার কারণে কোরবানীর পশু নিয়ে আসা ট্রাক দীর্ঘ সময় আটকে থাকায় বাড়তি ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে।
অনেক সাধারণ পন্যবাহি গাড়ি তিন ধরে আটকে রয়েছে। তাদের অভিযোগে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে শুধু পশুবাহি ট্রাক ও বাস দেওয়া হচ্ছে। ওই সাথে প্রতিটি ফেরীতে কিছু করে আমাদের গাড়িও দেওয়া হোক।
খুলনা থেকে আসা চানাচুর বোঝাই আরেক ট্রাক চালক হুমায়ুন কবির বলেন, কেন আমরা কি মানুষ না? গরুর গাড়ি ও যাত্রীবাহি বাস আগে পার করা হচ্ছে। প্রতিটি ফেরীতে এসব গাড়ির সাথে আমাদের দুই-চারটি করে গাড়ি দেওয়া হোক। তাহলেই তো ধীরে ধীরে কমে আসে। তাদের মতো আরো বেশ কয়েকজন চালক একই ধরনের কথা বলেন।
বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া কার্যালয়ের ব্যবস্থাপক আবু আব্দুল্লাহ বলেন, বৈরী আবহাওয়ার কারণে ফেরী ও লঞ্চ চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। সেই সাথে শিমুলিয়া রুটের গাড়ি এই রুটে আসায় অতিরিক্ত চাপ পড়েছে। পশুবাহী গাড়ি ও যাত্রীবাহী বাস আগে পার করা হচ্ছে। এসব গাড়ির চাপ কমলেই সাধারণ পন্যবাহি গাড়ি পার করা হবে।
রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান নিজে পশুবাহি ও যাত্রীবাহী বাসের সিরিয়ালে থাকা সবকটি কার্ভাডভ্যান ঘুরিয়ে দিয়ে বলেন, সব গাড়ি সিরিয়াল মতো পার হতে হবে। তবে উচ্চ মহলের নির্দেশে পশুবাহি ও যাত্রীবাহি বাস আগে পার হবে। সাধারণ পন্যবাহী গাড়ি সুযোগ থাকলে যাবে। তবে ঘাটের চাপ কমাতে গোয়ালন্দ মোড় থেকে বাজে মালের গাড়ি আটকে দেওয়া হচ্ছে। তাদেরকে বিকল্প রুট ব্যবহার করতে বলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!