রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৭:৪৫ অপরাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
জাপান ও সিঙ্গাপুরে ৮দিনের সরকারী সফরে আজ ঢাকা ত্যাগ করবেন রাষ্ট্রপতি শুধু ফেসবুক নিয়ে থাকলেই হবে না-কম্পিউটারও শিখতে হবে —জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম ইলিশ রক্ষা অভিযানে রাজবাড়ীর পদ্মা নদীতে আটক ৫১ জেলের ১২দিনের জেল নিউইয়র্ক সিটি’র ৫জন সিনেটর আজ আসছেন কালুখালীতে পূজা উদযাপন পরিষদের নতুন কমিটি গঠন কালুখালীর মদাপুর থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার র‌্যাবের অভিযানে নগরকান্দা থেকে গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার এবার ফরিদপুরে আড়াই বছরের শিশু রহমতকে খুন করল পাষান্ড বাবা রাজবাড়ীর শহীদওহাবপুরের নিমতলায় গাঁজাসহ বিক্রেতা নিয়ামত ও জাহিদ গ্রেপ্তার কালুখালীতে ইলিশ ধরার সময় আটক ৬জন জেলের কারাদন্ড

রাজবাড়ী বাজারে মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেডের ১৩৬তম শাখার উদ্বোধন

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮

॥আসহাবুল ইয়ামিন রয়েন॥ রাজবাড়ী বাজারে মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিঃ এর ১৩৬তম শাখার উদ্বোধন করা হয়েছে।
গতকাল ২৬শে ডিসেম্বর দুপুরে বাজারের কলেজ রোডের খোরশেদ প্লাজায় আনুষ্ঠানিকভাবে ফিতা কেটে রাজবাড়ী শাখার উদ্বোধন করেন সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য কামরুন নাহার চৌধুরী লাভলী। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ব্যাংকের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ জাকির হোসেন।
অতিথিদের মধ্যে আরও বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফকীর আব্দুল জব্বার, রাজবাড়ী পৌরসভার মেয়র মহম্মদ আলী চৌধুরী, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডঃ এম.এ খালেক, বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী হাজী মোঃ দেলোয়ার হোসেন, রাজবাড়ী চেম্বারের পরিচালক মোঃ জাকির হোসেন ও রাজবাড়ী থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার প্রমুখ।
আমন্ত্রিত অতিথিদের ধন্যবাদ জানিয়ে সমাপনী বক্তব্য রাখেন রাজবাড়ী শাখার প্রধান ও এফএভিপি মোঃ আবুল কালাম আজাদ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স ডিভিশনের পাবলিক রিলেশন্স অফিসার মোঃ আব্দুল হামিদ সোহাগ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য কামরুন নাহার চৌধুরী লাভলী মহান স্বাধীনতার স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুসহ স্বাধীনতা যুদ্ধের শহীদদের স্মরণ করে বলেন, আজকে রাজবাড়ীতে মার্কেন্টাইল ব্যাংকের যে শাখা উদ্বোধন হতে যাচ্ছে সেটা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জলিল ভাইয়ের প্রতিষ্ঠিত বাংলার আপামর মানুষের ব্যাংক। তিনি আমাদের কাছ থেকে প্রয়াত হলেও হাটি হাটি পা পা করে ব্যাংকটি সারা দেশে তাদের ১৩৫টি শাখার মাধ্যমে জনসাধারণকে ব্যাংকিং সুবিধা প্রদান করছে। সেটা সম্ভব হয়েছে বঙ্গবন্ধু কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী চিন্তা-ভাবনার কারণে। আজকে বাংলাদেশের জনসাধারণের প্রয়োজনের তাগিদে তাদের সেবা করার জন্য অনেক ব্যাংক প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। সব ব্যাংকেরই নারী-পুরুষের সকল ক্ষেত্রে সমঅধিকারের বিষয়টি মাথায় রেখে নারীদের ক্ষেত্রে সমান ব্যাংকিং সুবিধা প্রদানসহ প্রয়োজনে নারীদের উন্নয়নের লক্ষ্যে তাদেরকে আরো বেশী ব্যাংক ঋণ সুবিধা প্রদান করা উচিত। সে ক্ষেত্রে মাকেন্টাইল ব্যাংক অনেক এগিয়ে। তারা নারী উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় স্বল্প সুদে বিশেষ ঋণের ব্যবস্থা করেছে, যা এ জেলার নারীদের উন্নয়নে সহায়ক হবে বলে আমি বিশ্বাস করি। সর্বোপরি এই ব্যাংক তার কার্যক্রমের মাধ্যমে রাজবাড়ী জেলা তথা দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নসহ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর ভিশন অনুযায়ী উন্নত বাংলাদেশ গঠনে বিশেষ ভূমিকা রাখবে বলে আমি আশা করি।
স্বাগত বক্তব্যে ব্যাংকের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ জাকির হোসেন ব্যাংকের সার্বিক কার্যক্রম তুলে ধরে বলেন, আজকে মহান বিজয়ের মাসের সন্ধিক্ষণে রাজবাড়ীবাসীর জন্য মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেডের ১৩৬তম শাখা উদ্বোধন করতে পেরে আমার খুবই আনন্দিত। ১৯৯৯ সালের ২রা জুন ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মরহুম আব্দুল জলিলের হাত ধরে এই ব্যাংক তার যাত্রা শুরু করেছিল। বর্তমানে সারা দেশে রাজবাড়ী শাখাসহ ব্যাংকের মোট ১৩৬টি শাখা রয়েছে। মাকেন্টাইল ব্যাংক দেশের প্রথম সারির শীর্ষস্থানীয় ব্যাংকের মধ্যে একটি। যার বর্তমান আমানত প্রায় ২৩হাজার কোটি টাকা। এর মধ্যে ২২হাজার কোটি টাকা ব্যাংকটি বিনিয়োগ করেছে। এই ব্যাংকের মাধ্যমে দেশের প্রায় সাড়ে ৪হাজার লোকের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে। আমাদের প্রবাসী ভাই-বোনদের জন্য মার্কেন্টাইল ব্যাংক ৩৬টি দেশের ৩৫টি বিদেশী ব্যাংক ও ৩৩টি মানি এক্সচেঞ্জের মাধ্যমে তাদের রেমিটেন্স দেশে আনার কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এছাড়াও নারীদের জন্য নারী উন্নয়ন প্রকল্প নামে একটি বিশেষ প্রকল্প ও বেকার যুবকদের জন্য উদয়ন প্রকল্পসহ বিভিন্ন বিশেষ কার্যক্রমের মাধ্যমে দেশের নারী ও যুবকদের উদ্যোগী করে তোলার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। দেশের ব্যাংকারদের দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সকল ব্যাংকের ব্যাংকারদের বিশেষ প্রতিযোগিতার আয়োজন ও পুরস্কার প্রদানের মাধ্যমে ভালো ব্যাংকার সৃষ্টিতেও অবদান রাখছে। মূলতঃ এই ব্যাংকটি আধুনিক কম্পিউটারাইজড একটি ব্যাংক। যার মাধ্যমে রাজবাড়ীবাসীকে এটিএম, ডেবিড-ক্রেডিট কার্ড ও লকার সুবিধাসহ বিভিন্ন আধুনিক সুবিধা প্রদান করা হবে। এই ব্যাংকে যারা সঞ্চয়ী আমানত জমা রাখবেন তাদেরকে সর্বোচ্চ মুনাফা প্রদান করা হবে। এই ব্যাংক আপনাদের ব্যাংক তথা বাংলার সাধারণ মানুষের ব্যাংক হওয়ায় সকলের সহযোগিতায় আরও উন্নতি সাধন করবে বলে আমরা আশা করি। স্থানীয় ব্যবসায়ী, গণ্যমান্য ব্যক্তি, ব্যাংকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, আমন্ত্রিত অতিথি ও গণমাধ্যমকর্মীসহ গ্রাহকগণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!