মঙ্গলবার, ৩০ মে ২০২৩, ০৮:৪৭ অপরাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
বিশ্বব্যাপী ওমিক্রন সংক্রমণ বৃদ্ধিতে আইসোলেশন মেয়াদ অর্ধেক করার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ওমিক্রন ভেরিয়েন্ট ডেল্টা ও বিটার তুলনায় তিন গুণের বেশী পুনঃ সংক্রমন ঘটাতে পারে : গবেষণা প্রতিবেদন জাতিসংঘ ভবনের বাইরে এক বন্দুকধারী গ্রেফতার শান্তি চুক্তির পঞ্চম বার্ষিকী উপলক্ষে কলম্বিয়া সফর জাতিসংঘ মহাসচিব সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তিন বাহিনীর প্রধানগণের সাক্ষাৎ করোনা ভাইরাসের সংক্রমন বেড়ে যাওয়ায় অস্ট্রিয়ায় লকডাউন করোনা সংক্রমণ বাড়ায় ইউরোপের বিভিন্ন দেশে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ ভারতে নতুন করে ১০ হাজার ৩০২ জন করোনায় আক্রান্ত নভেম্বর মাসজুড়ে করাঞ্চলে কর মেলার সেবা পাবেন করদাতারা ঔপনিবেশিক আমলের ফৌজদারী কার্যবিধি যুগোপযোগী হচ্ছে

রাজবাড়ীর খানখানাপুর ও শহীদ ওহাবপুরে পুলিশের হ্যান্ড স্যানিটাইজার-মাস্ক বিতরণ

  • আপডেট সময় শুক্রবার, ২৭ মার্চ, ২০২০

॥আশিকুর রহমান/মাহফুজুর রহমান॥ করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে নিজস্ব উদ্যোগে ৫০ হাজার হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরী করে রাজবাড়ী জেলার ৫টি উপজেলার সাধারণ মানুষের মধ্যে বিনামূল্যে বিতরণ করছে জেলা পুলিশ।
তারই ধারাবাহিকতায় পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান, পিপিএম(বার)-এর নির্দেশে গতকাল ২৬শে মার্চ বিকেলে সদর উপজেলার খানখানাপুর ও শহীদ ওহাবপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে ঘুরে সাধারণ মানুষের মধ্যে দুই শতাধিক হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করেছেন খানখানাপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মোঃ শহীদুল ইসলাম। এ সময় নিজের ব্যক্তিগত উদ্যোগে এক হাজার মাস্কও বিতরণ করেন তিনি।
হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও মাস্ক বিতরণকালে খানখানাপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এস.আই মোঃ জাফর ইকবাল, রাজবাড়ী সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রেজাউজ্জামান খাঁন বাবু, যুগ্ম-সম্পাদক মোঃ ফজলুর রহমান, খানখানাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ আমির আলী মোল্লা, শহীদ ওহাবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান ও আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ আমানসহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
খানখানাপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মোঃ শহীদুল ইসলাম বলেন, ‘বর্তমানে হ্যান্ড স্যানিটাইজার খুবই গুরুত্বপূর্ণ ও প্রয়োজনীয় একটি জিনিসে পরিণত হয়েছে। অথচ মানুষের প্রয়োজন অনুযায়ী বাজারে সেগুলো পাওয়া যাচ্ছে না। কোথাও কোথাও পাওয়া গেলেও অনেকেরই তা আবার ক্রয় করার সামর্থ্য নেই। তাই আমাদের পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান নিজস্ব উদ্যোগে ৫০ হাজার হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরী করে জেলার ৫টি উপজেলার সাধারণ মানুষের মধ্যে বিনামূল্যে বিতরণ করছেন। তারই নির্দেশে আমি খানখানাপুর ও শহীদওহাবপুর ইউনিয়নের আখ সেন্টার মোড়, কুঠির হাট, গোয়ালন্দ মোড়ে এলাকায় ঘুরে ঘুরে সাধারণ মানুষের মধ্যে দুই শতাধিক হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করেছি। পাশাপাশি আমার ব্যক্তিগত উদ্যোগে এক হাজার মাস্কও বিতরণ করেছি।’

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!