শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৯:৫৬ পূর্বাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
বিশ্বব্যাপী ওমিক্রন সংক্রমণ বৃদ্ধিতে আইসোলেশন মেয়াদ অর্ধেক করার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ওমিক্রন ভেরিয়েন্ট ডেল্টা ও বিটার তুলনায় তিন গুণের বেশী পুনঃ সংক্রমন ঘটাতে পারে : গবেষণা প্রতিবেদন জাতিসংঘ ভবনের বাইরে এক বন্দুকধারী গ্রেফতার শান্তি চুক্তির পঞ্চম বার্ষিকী উপলক্ষে কলম্বিয়া সফর জাতিসংঘ মহাসচিব সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তিন বাহিনীর প্রধানগণের সাক্ষাৎ করোনা ভাইরাসের সংক্রমন বেড়ে যাওয়ায় অস্ট্রিয়ায় লকডাউন করোনা সংক্রমণ বাড়ায় ইউরোপের বিভিন্ন দেশে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ ভারতে নতুন করে ১০ হাজার ৩০২ জন করোনায় আক্রান্ত নভেম্বর মাসজুড়ে করাঞ্চলে কর মেলার সেবা পাবেন করদাতারা ঔপনিবেশিক আমলের ফৌজদারী কার্যবিধি যুগোপযোগী হচ্ছে

রাজবাড়ী জেলা আইনগত সহায়তা প্রদান কমিটির মাসিক সভা ও মিডিয়ার ভূমিকা বিষয়ক কর্মশালা

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২৯ নভেম্বর, ২০১৮

॥আসহাবুল ইয়ামিন রয়েন॥ রাজবাড়ী জেলা আইনগত সহায়তা প্রদান কমিটির আয়োজনে গতকাল ২৮শে নভেম্বর বিকাল ৪টায় উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় সরকারী আইনি সেবার সাফল্য প্রচার ও প্রসারে প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার ভূমিকা বিষয়ক কর্মশালা এবং জেলা আইনগত সহায়তা প্রদান কমিটির মাসিক সভা জেলা ও দায়রা জজের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।
জেলা আইনগত সহায়তা প্রদান কমিটির চেয়ারম্যান নবাগত জেলা ও দায়রা জজ বেগম নিলুফার সুলতানার সভাপতিত্বে সভায় কমিটির অন্যান্য সদস্যদের মধ্যে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোঃ মাছুদ করিম, চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দ আরাফাত হোসেন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট(উপ-সচিব) মোঃ সানোয়ার হোসেন, সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ রহিম বক্স, জেলা বার এসোসিয়েশনের সভাপতি এডঃ শফিকুল আজম মামুন, সাবেক সভাপতি এডঃ গনেশ নারায়র চৌধুরী, পিপি এডঃ মোঃ উজির আলী শেখ, জিপি এডঃ মোঃ আনোয়ার হোসেন, রাজবাড়ী প্রেসক্লাবের সভাপতি খান মোঃ জহুরুল হক, সাধারণ সম্পাদক খোন্দকার আব্দুল মতিন ও বালিয়াকান্দি উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি রঘুনন্দন সিকদার প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। সভা সঞ্চালনা করেন ও বিভিন্ন কার্যক্রমের উপর পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপনা করেন জেলা আইনগত সহায়তা কমিটির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও সহকারী জজ ইমরান আহম্মেদ।
এ সময় সিনিয়র সহকারী জজ সৈয়দ মোস্তফা রেজা নূর, বেগম কায়ছুন্নাহার সুরমা ও সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আবু হাসান খায়রুল্লাহ্, জজশীপ ও জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেসীর অন্যান্য বিচারকগণ, জেল সুপার মোঃ আনোয়ারুল করিম ও জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নূরে সফুরা ফেরদৌসসহ কমিটির অন্যান্য সদস্যগণ এবং জেলার প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার সংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।
সভাপতির বক্তব্যে জেলা আইনগত সহায়তা প্রদান কমিটির চেয়ারম্যান জেলা ও দায়রা জজ নিলুফার সুলতানা বলেন, আমাদের দেশে তৃণমূল পর্যায়ের অসহায় দুঃস্থ মানুষ যারা আইনী সহায়তা বঞ্চিত বা অর্থের অভাবে ন্যায় বিচার পাচ্ছে না বর্তমান সরকার দেশের প্রতিটি জেলায় জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির মাধ্যমে তাদেরকে বিনামূল্যে আইনী সহায়তা প্রদান করে যাচ্ছে। বর্তমানে তৃণমূল পর্যায়ে অনেক মানুষই জানে না জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির মাধ্যমে বিনামূল্যে সেবা পাওয়া যায়। সরকারের এই মহতী কার্যক্রম সম্পর্কে যাতে তৃণমূল পর্যায়ে আরো বেশী প্রচার করা যায় সেই জন্য প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়াকে জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির কার্যক্রম সম্পর্কে আরো বেশী প্রচার করতে হবে এবং তাদের সুচিন্তিত লেখনীর মাধ্যমে জেলার বিচার বঞ্চিত অসহায় গরীব মানুষের কাছে তুলে ধরতে হবে। এক্ষেত্রে জেলার স্থানীয় প্রিন্ট মিডিয়াগুলো জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির সহায়তায় সে সমস্ত বিচার কাজ সম্পন্ন হয়েছে বা চলমান আছে সে সব বিচারের কেস স্টাডি তাদের লেখনীতে তুলে ধরে তৃণমূল পর্যায়ে প্রচারে সবচেয়ে বেশী গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে।
তিনি আরো বলেন, রাজবাড়ী জেলার সকল প্রিন্ট ও ইলেক্টনিক মিডিয়া জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির সকল কার্যক্রম তৃণমূল পর্যায়ে প্রচারে গুরুত্ব সহকারে কাজ করবে। তিনি প্রতি মাসে জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির সভায় যে সকল কার্যক্রম নিয়ে আলোচনা হয় সেগুলো তুলে ধরার আহ্বান জানান।
এছাড়াও সভাপতিসহ বক্তাগণ তাদের বক্তব্যে দেশের তৃণমূল পর্যায়ের সাধারণ মানুষ যারা অর্থাভাবে ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত তারা যাতে জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির মাধ্যমে সরকারী খরচে বিনামূল্যে আইনী সুবিধা পায় সেই লক্ষ্যেকে সামনে রেখে ব্যাপক প্রচারের মাধ্যমে সকলকে সম্মিলিতভাবে কাজ করার আহ্বান জানান।
উল্লেখ্য যে, কর্মশালায় উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় সরকারী আইনী সেবার ডিজিটাল ব্যবস্থাপনা শীর্ষক আলোচনায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করার মাধ্যমে বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল বাংলাদেশ ‘রূপকল্প-২০২১’, জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থার অধীনস্থ লিগ্যাল এইড অফিসসমূহে অসহায় সাধারণ বিচারপ্রার্থীদের আইনী পরামর্শ, বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তি ও আর্থিক সহায়তা প্রদান সংক্রান্ত তিনটি সেবা প্রদান, সাংবিধানিকভাবে স্বীকৃত “আইনে সমান অধিকার” নিশ্চিত করা, সরকারের মিলেনিয়াম ডেভেলপমেন্ট গোল সমাপ্ত করে সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোল, দেশের সকল জেলার লিগ্যাল এইড কমিটি গঠিত হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত ৩লক্ষ ৪৭হাজার ৬শত ৭৭জন বিচার প্রার্থীকে বিনামূল্যে সরকারী আইনী সহায়তা প্রদান, বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তির মাধ্যমে ১৩কোটি ১৭লক্ষ ৩৯হাজার ১৩৪টাকা ক্ষতিপূরণ আদায় করে দেওয়া, দেশের তৃণমূল জনসাধারণের কাছে সরকারী আইনী সেবার চাহিদা, ঘরে বসে বিনা খরচে শুধুমাত্র একটি ফোন কলের মাধ্যমে আইনী পরামর্শ, (১৬৩৪০৩ টোল ফ্রি) হেল্পলাইনের মাধ্যমে আইনী সুবিধা প্রাপ্তি, জাতীয় আইনগত সহায়তা সংস্থা কর্তৃক ‘লিগ্যাল এইড অফিস ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার’ নির্মাণ ও সকল লিগ্যাল এইড অফিসের তথ্য, উপাত্ত, পরিসংখ্যান ও বিবরণ সংরক্ষণ, স্মার্ট মোবাইল ফোনে “বিডি লিগ্যাল এইড” অ্যাপস এর ব্যবহার, জেলা লিগ্যাল এইড অফিসে অবকাঠমো সুবিধা, দ্রুত গতির ইন্টারনেট, ‘আইন সমতা’ নিশ্চিত করার মাধ্যমে জনগণের দোরগোড়ায় আইনী সুবিধা পৌঁছে দেওয়াসহ লিগ্যাল এইড কমিটির কার্যক্রম কীভাবে আরো বেশী বেগবান করা যায় সেসব বিষয় তুলে ধরা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!