fbpx
শুক্রবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২০, ১২:০৯ অপরাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
গোয়ালন্দে শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করলেন এমপি কাজী কেরামত আলী পিপিএম-সেবা পদক পেলেন রাজবাড়ীর কৃতি সন্তান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মশিউদ্দৌলা রেজা রাজবাড়ীতে বিভিন্ন দাবী আদায়ে কর্মবিরতিতে যাচ্ছে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের কর্মচারীরা রাজবাড়ী পৌরসভায় ঠিকাদারী কাজের বিল আটকে রাখার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে কুয়াশায় আবারও দুই ঘন্টা ফেরী বন্ধ॥দুর্ভোগ দৌলতদিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে ফেন্সিডিলসহ বিক্রেতা গ্রেপ্তার যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সিতে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত নিউইয়র্কে বাংলাদেশী আমেরিকানদের তিন সংগঠনের বর্ষবরণ ও বার্ষিক নৈশভোজ অনুষ্ঠান রাজবাড়ী গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীকে বিদায়ী সংবর্ধনা কালুখালীতে আন্তঃ প্রাথমিক বিদ্যালয় ক্রীড়া-সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা সমাপ্ত

সমাজের সকল অনিয়ম-দুর্নীতির বিরুদ্ধে সাংবাদিকের কলম হতে হবে ক্ষুরধার—প্রবীণ সাংবাদিক প্রফেসর এটিএম রফিক উদ্দিন

  • আপডেট সময় রবিবার, ১১ আগস্ট, ২০১৯

॥সুশীল দাস॥ এগিয়ে যাওয়ার দৃঢ় প্রত্যয়ে জনপ্রিয় দৈনিক মাতৃকণ্ঠের প্রতিনিধি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল ১০ই আগস্ট বেলা ১১টায় রাজবাড়ী জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে এই প্রতিনিধি সম্মেলনের অনুষ্ঠিত হয়।
সম্মেলনের উদ্বোধন করেন প্রবীণ সাংবাদিক ও রাজবাড়ী প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি প্রফেসর এটিএম রফিক উদ্দিন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন দৈনিক মাতৃকণ্ঠের সম্পাদক ও প্রকাশক এবং রাজবাড়ী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক খোন্দকার আব্দুল মতিন।
অন্যান্যের মধ্যে দৈনিক মাতৃকণ্ঠের উপদেষ্টা সম্পাদক আবুল কালাম, নির্বাহী সম্পাদক হাফিজা খাতুন, সহ-সম্পাদক এম দেলোয়ার হোসেন, বার্তা সম্পাদক শিহাবুর রহমান, চীফ রিপোর্টার আসহাবুল ইয়ামিন রয়েন, স্টাফ রিপোর্টার মোঃ মাহফুজুর রহমান, বিশেষ প্রতিনিধি রাশেদুল হক রায়হান, কাজী তানভীর মাহমুদ, শেখ আলী আল মামুন, রবিউল খন্দকার মজনু, দেবাশীষ বিশ্বাস, মোঃ রফিকুল ইসলাম, পাংশা প্রতিনিধি মোক্তার হোসেন, বালিয়াকান্দির রঘুনন্দন সিকদার, আতিয়ার রহমান আতিক, গোয়ালন্দের, আবুল হোসেন ও কালুখালীর মোখলেছুর রহমান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন দৈনিক মাতৃকণ্ঠের বিশেষ প্রতিনিধি হেলাল মাহমুদ।
স্বাগত বক্তব্যে দৈনিক মাতৃকণ্ঠের সম্পাদক ও প্রকাশক খোন্দকার আব্দুল মতিন বলেন, অনেক বাধা-বিঘœ পেরিয়ে আজ আমরা এতো দূর এসেছি। সফলতার সাথে প্রকাশনার ১৫বছরে পৌঁছেছি। পত্রিকার এই অগ্রযাত্রায় সবচেয়ে বড় ভূমিকা রেখেছেন আমাদের প্রতিনিধিরা। দীর্ঘদিন পরে আজকের এই প্রতিনিধি সম্মেলনে সুন্দর পরিবেশে মাতৃকণ্ঠ পরিবারের সকলের সাথে একত্রিত হতে পেরে ভালো লাগছে। আসলে মফস্বলের প্রতিনিধিরাই হচ্ছে পত্রিকার প্রাণ। আপনারা আরো অধিক তৎপরতার সাথে সংবাদ সংগ্রহ করে বস্তুনিষ্ঠভাবে প্রতিবেদন তৈরী করে পাঠাবেন। যারা ভালো কাজ করবেন তাদের মধ্যে প্রতি বছর দুই জনকে বিশেষ উপহার প্রদান করা হবে।
তিনি আরও বলেন, পত্রিকার অনলাইন পাঠক সংখ্যা আজ পর্যন্ত ১লক্ষ ১৭হাজার ছাড়িয়েছে। প্রিন্ট পত্রিকার চাহিদাও দিন দিন বাড়ছে। মাতৃকণ্ঠের পাশাপাশি আমাদের সাপ্তাহিক সাহসী সময় ও রাজবাড়ী সংবাদও এগিয়ে চলেছে। তিনি প্রতিনিধিদের দায়িত্বশীলতার সাথে সংবাদ প্রেরণের আহ্বান জানান। এছাড়াও তিনি আগামী অক্টোবর মাসে সকলকে নিয়ে জাঁকজমকপূর্ণভাবে দৈনিক মাতৃকণ্ঠের ১৬তম বর্ষে পদাপর্ণ উদযাপন করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
প্রতিনিধি সম্মেলনের উদ্বোধক প্রবীণ সাংবাদিক ও রাজবাড়ী প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি প্রফেসর এটিএম রফিক উদ্দিন বলেন, রাজবাড়ীর মতো দরিদ্র একটি শহরে ১৫বছর ধরে একটি দৈনিক পত্রিকার নিয়মিত প্রকাশনা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ ও সাহসিকতার কাজ। এ জন্য পত্রিকাটির সম্পাদক ও প্রকাশক খোন্দকার আব্দুল মতিন রাজবাড়ীবাসীর ধন্যবাদ পাওয়ার যোগ্য। আমি পছন্দ করি এমন কয়েকজন সংবাদকর্মীর লেখা নিয়মিত মাতৃকণ্ঠে দেখতে পাই। সাংবাদিকতা হবে জনসচেতনতা ও জনকল্যাণমূলক, ঘুষ, দুর্নীতি, অনিয়ম, মাদক, জঙ্গীবাদ বিরোধী এবং সাধারণ মানুষের পক্ষে। মাতৃকণ্ঠের মফস্বল প্রতিনিধিদের লেখার বৈচিত্র্যের দিকে নজর দিতে হবে। ফিচারের উপর গুরুত্ব দিতে হবে। অনিয়ম-দুর্নীতির বিরুদ্ধে সাংবাদিকের কলম হবে ক্ষুরধার, কিন্তু এর সাথে আমরা যেন জড়িয়ে না পড়ি। সাংবাদিকদের কেউ ভয় পাবে না, সকলে সমীহ করবে-এমনটাই হওয়া উচিত। এথিকসটা ঠিক থাকলে সাংবাদিক যেখানেই যাক, সম্মান পাবেই। আমরা নিজেরা যেন আমাদের নিজেদের সম্মান নষ্ট না করি। প্রতিবছর একবার করে হলেও এ ধরনের সম্মেলন হলে পত্রিকা সমৃদ্ধ হবে। সংবাদ কর্মীদের উৎসাহ বাড়বে।
পত্রিকার উপদেষ্টা সম্পাদক আবুল কালাম বলেন, আপনারা আরো নিরলসভাবে কাজ করেন। কাজের গতি বাড়িয়ে দেন। পত্রিকার মানোন্নয়নের ব্যাপারে সবসময় সচেষ্ট থাকবেন। তিনি ডেঙ্গু প্রতিরোধে জনগণের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য গুরুত্বারোপ করেন। এ ছাড়াও তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধে এবং শোকের এই মাসে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারসহ ১৫ই আগস্টের সকল শহীদের রুহের মাগফেরাত কামনা করেন।
নির্বাহী সম্পাদক হাফিজা খাতুন বলেন, অনেক বাধা-বিপত্তি পেরিয়ে এতোদূর এসেছি। আজকে আমরা যে সফলতা দেখতে পেয়েছি তা অনেক কষ্টের ফসল। আপনারা পাশে ছিলেন বলেই তা সম্ভব হয়েছে। ভবিষ্যতেও পাশে থাকবেন-এই প্রত্যাশা রইলো।
সহ-সম্পাদক এম দেলোয়ার হোসেন বলেন, প্রতিনিধিরাই পত্রিকার প্রাণ। তাদের মাধ্যমে পত্রিকার পাঠকের কাছে যায়, পাঠক নন্দিত হয়। সংবাদ কর্মীদের ঘটনার গভীরে যাওয়া উচিত। আপনারা সাহসী হন। ঘটনার পিছনের ঘটনা তুলে আনার ব্যাপারে সচেষ্ট থাকবেন।
পত্রিকার সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার সুশীল দাস, স্টাফ রিপোর্টার মোঃ রফিকুল ইসলাম, লাবনী আক্তার, বালিয়াকান্দির তনু সিকদার সবুজ, কালুখালীর মনির হোসেন, মোঃ রাকিবুল ইসলাম, গোয়ালন্দের মঈনুল হক মৃধা, মেহেদী আসাদুজ্জামান অভি, মোঃ আব্দুল মতিন মোল্লা এবং চীফ ফটোগ্রাফার আব্দুল হালিম বিশ্বাসসহ মাতৃকণ্ঠ পরিবারের সাংবাদিকগণ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়াও সম্মেলন চলাকালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারসহ ১৫ই আগস্টের সকল শহীদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!