fbpx
শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৭:১১ পূর্বাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
প্রধানমন্ত্রী আবুধাবী পৌঁছেছেন বহরপুরে আন্তঃ জেলা বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের খেলায় রাজশাহী একাদশ বিজয়ী ফরিদপুরে ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফের জন্মদিন পালন পূজা উদযাপন পরিষদের বর্ধিত সভায় রাজবাড়ীর প্রতিনিধি দলের অংশগ্রহণ লেখাপড়ার পাশাপাশি দৌলতদিয়া ঘাটে বই বিক্রি করে দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্র নান্নু গোয়ালন্দে প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন এবং স্মারকলিপি প্রদান পাংশায় পূজা উদযাপন পরিষদের নেতা দীপকের মাতার আদ্য শ্রাদ্ধত্তোর অনুষ্ঠান বালিয়াকান্দির কলেজ শিক্ষক মোজাম্মেলের মৃত্যু বার্ষিকী শ্রীপুরে ট্রাক চালকের বাড়ী থেকে বিশালাকৃতির গোখরা সাপ উদ্ধার গোয়ালন্দে অকাল প্রয়াত ২বন্ধু রনজু-লেবুর রুহের মাগফেরাত কামনায় দোয়া মাহফিল

পাংশার মাছপাড়ায় ডাকাত দলের সদস্য রবিউল খুন

  • আপডেট সময় বুধবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

॥মোক্তার হোসেন॥ রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলার মাছপাড়া ইউপির গাঁড়াল গ্রামে গত ৯ই সেপ্টেম্বর রাতে আন্তঃ জেলা ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য, অস্ত্রধারী শীর্ষ সন্ত্রাসী ও এলাকার ত্রাস রবিউল ইসলাম খান(৪২) খুন হয়েছে।
গত সোমবার রাতের যে কোনো সময়ে গাঁড়াল গ্রামের আনার ঢালা বটতলা নামক স্থানে হরেন্দ্রনাথের বাড়ীর দক্ষিণপাশে কাঁচা রাস্তার উপর সন্ত্রাসীদের অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের জের ধরে এ খুনের ঘটনা ঘটে।
খবর পেয়ে গতকাল ১০ই সেপ্টেম্বর সকালে পাংশা মডেল থানা পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে পোস্ট মর্টেমের জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। নিহত রবিউল লক্ষণদিয়া গ্রামের মৃত হোসেন আলী খানের ছেলে।
নিহত রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় অস্ত্র, ডাকাতি ও দ্রুত বিচার আইনে মোট ১১টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে পাংশা মডেল থানায় ৩টি, রাজবাড়ী সদর থানায় ১টি, গোয়ালন্দ ঘাট থানায় ১টি, মানিকগঞ্জ সদর থানায় ২টি, কুষ্টিয়ার খোকসা থানায় ২টি ও কুমারখালী থানায় দুটি মামলা রয়েছে।
নিহত রবিউল ইসলামের ছোট ভাই মুকুল খান জানায়, রবিউল ইসলাম তাঁতের গামছা বিক্রি করত। সেই সুবাদে বিভিন্ন জেলায় যাতায়াত করত। প্রায় সময় বাড়ীর বাইরে অবস্থান করত সে। অবস্থান করাকালীন সময়ে বিভিন্ন জেলার লোকজনের সাথে পরিচিত হওয়ার কারণে বিভিন্ন অপকর্মে জড়িয়ে পড়ে রবিউল। নিষেধ করলেও শুনতো না।
স্থানীয়রা জানায়, রবিউল ইসলাম ছিল এলাকার ত্রাস। চুরি, সড়ক ডাকাতি, চাঁদাবাজি, খুন-সন্ত্রাসীসহ নানা ধরণের অপরাধ কর্মকান্ডে সে জড়িত ছিল।
পাংশা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আহসান উল্লাহ জানান, গাঁড়াল গ্রামের আনার ঢালা বটতলা নামক স্থানে কাঁচা রাস্তার উপর গত সোমবার রাতের যে কোনো সময়ে সন্ত্রাসী দলের অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বে খুন হয় রবিউল ইসলাম খান। সে আন্তঃ জেলা ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য ও শীর্ষ সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় অস্ত্র, ডাকাতি ও দ্রুত বিচার আইনে মোট ১১টি মামলা রয়েছে।
অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের জের ধরে খুনের ঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার নিহত রবিউলের ভাই মুকুল খান বাদী হয়ে পাংশা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছে। মামলা নং-৪, ধারাঃ ৩০২/৩৪ দঃ বিঃ। তবে নিহত রবিউলের সাধে তার দলের কোন কোন সন্ত্রাসীর অভ্যন্তরীণ বিরোধ ছিল তা প্রকাশ পায়নি।
এদিকে অস্ত্রধারী শীর্ষ সন্ত্রাসী ও এলাকার ত্রাস রবিউল ইসলাম খুনের ঘটনায় এলাকায় শান্তিপ্রিয় মানুষের মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!