রাজবাড়ীতে স্কুল ছাত্রীর গায়ে কেরোসিন দিয়ে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা॥মামলা রাজবাড়ীতে স্কুল ছাত্রীর গায়ে কেরোসিন দিয়ে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা॥মামলা – দৈনিক মাতৃকণ্ঠ
মঙ্গলবার, ২০ অগাস্ট ২০১৯, ০৭:৩৯ পূর্বাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনাম ::
পাল্টে যাচ্ছে গোয়ালন্দ মোড় ও রাজবাড়ী রাস্তার মোড়ের নাম ফরিদপুরে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মসজিদের খাদেমের মৃত্যু নগরকান্দার জোড়া খুনের সাথে জড়িতদের শাস্তির দাবীতে সংবাদ সম্মেলন-মানববন্ধন রাজবাড়ী ডায়াবেটিক সমিতির আয়োজনে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ভাঙ্গায় জুয়েলার্সের মধ্যে ইয়াবা বেচাকেনার সময় ৪জন গ্রেপ্তার জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বালিয়াকান্দিতে ইফার আয়োজনে আলোচনা সভা ও পুরষ্কার বিতরণ ডিবির অভিযানে দাদশী থেকে ইয়াবাসহ বিক্রেতা গ্রেফতার বালিয়াকান্দিতে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেপ্তার জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সোনাকান্দরে দোয়া মাহফিল ফরিদপুরে র‌্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ বিক্রেতা গ্রেপ্তার

রাজবাড়ীতে স্কুল ছাত্রীর গায়ে কেরোসিন দিয়ে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা॥মামলা

  • আপডেট সময় রবিবার, ৯ জুন, ২০১৯

॥দেবাশীষ বিশ্বাস/হেলাল মাহমুদ॥ রাজবাড়ী সদর উপজেলার পাঁচুরিয়া ইউনিয়নের খোলাবাড়ীয়া গ্রামে গত ৬ই জুন দুপুরে যুথি(১৬) নামের ১০ম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে হাত-পা বেঁধে গায়ে কেরোসিন তেল ঢেলে দিয়ে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করেছে দুর্বৃত্তরা।
আহত যুথি বর্তমানে নিজ বাড়ীতেই চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় যুথির পিতা ফজলুর রহমান ব্যাপারী বাদী হয়ে একই এলাকার শিল্পী বেগমসহ অজ্ঞাতনামা ৪জনের নামে গতকাল ৮ই জুন রাজবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।
যুথির মা নাসিমা বেগম বলেন, যুথি খানখানাপুরের তমিজ উদ্দিন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর ছাত্রী। ঈদের দিন(বুধবার) আমাদের প্রতিবেশী শিল্পী বেগম আমার মেয়ের কাছে ‘অন্য ছেলের সাথে সম্পর্ক ও আপত্তিকর ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার’ হুমকি দিয়ে মোটা অংকের টাকা দাবী করে। আমার মেয়ে এতে অস্বীকৃতি জানিয়ে আমাদের কাছে বলে দিলে সে ক্ষুদ্ধ হয়। গত বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে আমি ঘরের মধ্যে ঘুমাচ্ছিলাম। যুথি ও তার ছোট বোন বাইরে জাম খাচ্ছিল। হঠাৎ ছোট মেয়ের চিৎকারে আমার ঘুম ভেঙ্গে যায়। বাইরে বের হয়ে বড় মেয়ের কথা জিজ্ঞাসা করলে সে বলে বোরকা পড়া ২জন লোক তাকে তুলে নিয়ে গেছে। তখন আমিও চিৎকার করতে থাকি। আমার চিৎকার শুনে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে বাড়ীর পিছনের পাটক্ষেত থেকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় মেয়েকে উদ্ধার করা হয়।
যুথিদের প্রতিবেশী সাথী সরকার বলেন, চিৎকার-চেঁচামেচিতে আমরা এগিয়ে গিয়ে তাকে উদ্ধার করি। তার মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন ও গায়ের জামা-কাপড় ছেঁড়া ছিল।


মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে আসা যুথি জানায়, পাশের গ্রামের রাজু নামের একটি ছেলে তাকে পছন্দ করতো। বিষয়টি তাদের প্রতিবেশী শিল্পী বেগম জানতো। এটাকে কেন্দ্র করে সে তার কাছে টাকা দাবী করে। বিষয়টি পরিবারকে জানানোয় তার আক্রোশে পরের দিন দুপুরে তাকে তুলে নিয়ে ওড়না দিয়ে হাত-পা বেঁধে গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়।
যুথির বড় ভাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪র্থ বর্ষের ছাত্র সোহেল ব্যাপারী বলেন, এ ঘটনায় নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতে থাকায় গত ৭ই জুন রাতে আমি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি পোস্ট দেই। কিছুক্ষণ পর রাজবাড়ী থানার ওসি পুলিশ পাঠিয়ে থানায় ডেকে নিয়ে বিস্তারিত জেনে মামলা করার পরামর্শ দেন।
এ ব্যাপারে রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার আসমা সিদ্দিকা মিলি বিপিএম, পিপিএম-সেবা গতকাল শনিবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ বিষয়ে তিনি বলেন, এ ঘটনায় রাজবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। স্পর্শকাতর এই বিষয়টি নিয়ে পুলিশের ২টি টিম মাঠে কাজ করছে এবং আসামীদের ধরার চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

পুলিশী তৎপরতা ঃ রাজবাড়ী সদর থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার জানান, মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। মামলার পর থেকেই পুলিশ সুপারের নির্দেশে আসামীদের আটক করার জন্য পুলিশের ৩টি টিম কাজ করছে।
তিনি আরো বলেন, রাজবাড়ীতে যাতে নুসরাতেরমত কোন ঘটনা না ঘটে সে কারণেই আমি নিজেই তাদের বাড়িতে অবস্থান করছি। তাদের নিরাপত্তা দিতে যা করা প্রয়োজন পুলিশের পক্ষ থেকে সকল প্রস্ততি নেওয়া হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
error: আপনি নিউজ চুরি করছেন, চুরি করতে পারবেন না !!!!!!